শিরোনামঃ-

» সাবেক এমপির স্ত্রীকে ৪ মাসের আটকাদেশ

প্রকাশিত: ২১. সেপ্টেম্বর. ২০২৩ | বৃহস্পতিবার

ডেস্ক নিউজঃ

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য (এমপি) মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের স্ত্রী সৈয়দা খুরশীদ জাহান স্মৃতির বিরুদ্ধে ঋণখেলাপের দায়ে চার মাসের দেওয়ানি আটকাদেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) গাইবান্ধা জেলা জজ আদালতের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. শাহাদৎ হোসেন লাকু জানান, যুগ্ম জেলা জজ ও অর্থ ঋণ প্রথম আদালতের বিচারক মো. সুলতান মাহমুদ এই আদেশ দেন।

সৈয়দা খুরশীদ জাহান স্মৃতি মেসার্স আশরাফ সিড স্টোর লিমিটেডের চেয়ারম্যান। এ ছাড়া তিনি সুন্দরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য।

মামলার বরাত দিয়ে অ্যাডভোকেট শাহাদৎ জানান, মেসার্স আশরাফ সিড স্টোর লিমিটেডের চেয়ারম্যান সৈয়দা খুরশীদ জাহান স্মৃতি রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক সুন্দরগঞ্জ শাখা থেকে ৩৪ কোটি এক লাখ ৪৪ হাজার ৩০৮ টাকা ঋণ গ্রহণ করেন। সেই ঋণের টাকাসহ সুদাসল মিলে ৪১ কোটি ২৯ লাখ ৮ হাজার ৪৬৭ টাকা হয়। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে টাকা পরিশোধ না করায় তা আদায়ের লক্ষ্যে তার বিরুদ্ধে আদালতে ২৬৬/১৮ নম্বরে একটি মামলা দায়ের করে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। পরে আদালত বিবাদী খুরশীদ জাহান স্মৃতির বিরুদ্ধে সমন জারি করেন। কিন্তু সমন জারির পরও বিবাদী দাবিকৃত টাকা পরিশোধ না করে ২০২২ সালের ২৫ মে আদালতে হাজির হয়ে মামলা খারিজের আবেদন করেন। গত ৪ জুলাই শুনানি শেষে সেই আবেদন নামঞ্জুর করেন আদালতের বিচারক।

তিনি আরও জানান, সর্বশেষ গত মঙ্গলবার মামলাটির শুনানি হয় আদালতে। এ সময় মামলার বাদী ডিক্রিদার পক্ষ হয়ে বিবাদী খুরশীদ জাহান স্মৃতির বিরুদ্ধে দেওয়ানি আটকাদেশের প্রার্থনা করেন। পরে ৩৪ (১) ধারায় তা মঞ্জুর করে চার ৪ মাসের আটকাদেশ প্রদান করেন আদালত। একই সঙ্গে তামিল প্রতিবেদন প্রাপ্তির জন্য আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর নতুন দিন ধার্য করেন আদালতের বিচারক।

এ বিষয়ে মেসার্স আশরাফ সিড স্টোর লিমিটেডের চেয়ারম্যান সৈয়দা খুরশীদ জাহান স্মৃতি বলেন, ‘আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।’ তবে এর বেশি কিছু বলতে রাজি হননি তিনি।

এদিকে, সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম আজমিরুজ্জামানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি লোকমুখে শুনেছি। তবে এখনও আদালতের কোনও আদেশ কিংবা নির্দেশনা পাইনি।’

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৭৩ বার

Share Button

Callender

May 2024
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031