শিরোনামঃ-

» সংবিধানে বলা আছে আমরা জনগণের সেবক : যুগ্মসচিব নাসরিন জাহান

Published: ২৬. মে. ২০২৪ | রবিবার

ডেস্ক নিউজঃ

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের যুগ্মসচিব নাসরিন জাহান বলেছেন, জনগণের ট্যাক্সের টাকায় আমাদের সংসার চলে। ওই টাকায় আমরা আমাদের মা-বাবা ও সন্তানদের ভরণপোষণ করি। সংবিধানে বলা আছে আমরা জনগণের সেবক।

মনে রাখতে হবে এখানে এ অঞ্চলের যারা পাসপোর্ট করতে আসেন, তাঁদের বৃহৎ অংশ প্রবাসী। সারা বিশ্বে কাজ করে তাঁরা যে অর্থ পাঠান, তা দিয়ে আমাদের অর্থনীতি সচল থাকে, দেশ চলে। তাই তাঁদের গুরুত্ব দিয়ে সহজে তাদের পাসপোর্ট ডেলিভারি দিতে কাজও করে যাচ্ছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

রবিবার (২৭ মে) সকাল ১০টায় সিলেট বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিস আয়োজিত গণশুনানিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন তিনি।

এসময় তিনি আরও বলেন, কেউ যদি প্রতারক ধরে পাসপোর্ট করতে এসে বিড়ম্বনায় পড়েন তাহলে সেই দায়ভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নেবেন না। আবার কেউ যদি ভুল তথ্য দিয়ে পাসপোর্ট করতে চান তাহলে মেশিন কিংবা সফটওয়্যার তা গ্রহণ করবে না। সেই জন্য সঠিক সময়ে সেবাগ্রহীতাদের পাসপোর্ট পাওয়ার প্রথম শর্ত হচ্ছে জাতীয় পরিচয়পত্রের সাথে মিল রেখে সঠিকভাবে ফরম পূরণ করে আবেদন করা।

এ কার্যালয়ে এসে যদি কেউ কোন সেবাগ্রহীতাদের হয়রানি করেন, সে যেই হোক তাকে আইনের আওতায় নিয়ে আসবেন। এখানে যেন কোন প্রতারক প্রবেশ করতে না পারে।

সিলেট বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের উপ-পরিচালক মহের উদ্দিন সেখের সভাপতিত্বে এবং উপ-সহকারী পরিচালক মো. শাহাদাত হোসেনের সঞ্চালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন, মহানগরীর ২৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ছয়েফ খান, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমদ, সমাজসেবী কিরণ দেবনাথ, জেলা যুবলীগ নেতা এম আব্দুল মান্নান দুলালসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার প্রতিনিধি ও পাসপোর্ট অফিসে আসা সেবাগ্রহীতাগণ।

» শ্রম কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে তথ্য অধিকার বিষয়ক বিভাগীয় কর্মশালা অনুষ্ঠিত

Published: ২৬. মে. ২০২৪ | রবিবার

ডেস্ক নিউজঃ

শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নজরুল ইসলাম চৌধুরী বলেছেন, জনসাধারণের ক্ষমাতায়ন, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধি এবং দূর্ণীতি হ্রাস করে সুশাসন প্রতিষ্ঠার জন্য তথ্য প্রাপ্তির অধিকার সুনিশ্চিত করতে হবে। এই মহৎ উদ্দেশ্যেই তথ্য অধিকার আইন, বিধিমালা ও প্রবিধানমালা জানা অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক। সকল নাগরিকের অধিকার রয়েছে তথ্য জানার। তাই তাঁদেরকে সঠিক তথ্য প্রদান করতে হবে।

রবিবার (২৬ মে) সিলেট সার্কিট হাউজের সভাকক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে তথ্য অধিকার বিষয়ক বিভাগীয় কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মাহবুব হোসেনের সভাপতিত্বে ও উপসচিব (প্রশিক্ষণ) বিমলেন্দু ভৌমিকের পরিচালনায় কর্মশালায় প্রশাসনের কর্মকর্তা, তথ্য মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও প্রাতিষ্ঠানিক এবং অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের বিভিন্ন সেক্টরের মালিক/ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ ও শ্রমিক প্রতিনিধি, শিশুশ্রম নিরসনের সাথে সম্পৃক্ত বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি এবং কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

» সিলেটে কারামুক্ত যুবদল নেতা কর্মীদের সংবর্ধনা প্রদান

Published: ২৬. মে. ২০২৪ | রবিবার

এ দেশে এখন কেউ আর নিরাপদ নয়, বিচার চলছে শুধু বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীদের উপর : জাকির

ডেস্ক নিউজঃ

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ সভাপতি জাকির হোসেন সিদ্দিকী বলেছেন, এ দেশে এখন কেউ আর নিরাপদ নয়।

ব্যাংক থেকে শুরু করে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র পর্যন্ত কোথাও নেই কোন নিরাপত্তা। বিচার চলছে শুধু বিএনপি সহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের উপর। আমাদের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ ছিল বিধায় হাজার চেষ্টা করেও দলকে ভাঙতে পারে নাই।

তিনি বলেন, মানুষের অধিকার আজ লুন্ঠিত। সেই অধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য আমাদের সংগ্রাম চলবেই। কারণ বিএনপিই দেশের সবচেয়ে বড় ও জনপ্রিয় দল।

এজন্যই চলমান আন্দোলনে বিএনপি, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, ছাত্রদল সহ সহযোগী সংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই স্বৈরাচারী সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। আমাদের আন্দোলন চালিয়ে যেতে হবে।

আন্দোলন সফল না হওয়া পর্যন্ত আমরা ঘরে ফিরে যাবো না। প্রত্যেকে হাতে হাত মিলিয়ে দেশনায়ক তারেক রহমানের হাতকে শক্তিশালী করে আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

তিনি রবিবার (২৬ মে) নগরীর দরগা গেইটস্থ শহীদ সোলেমান হলে কারামুক্ত নেতাকর্মীদের জন্য সিলেট মহানগর যুবদলের উদ্যোগে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সংবর্ধিত কারামুক্ত নেতৃবৃন্দরা হলেন, ওসমান গনি, আব্দুল্লাহ শফি সাইদ (সাহেদ), কল্লোল জ্যোতি বিশ্বাস জয়, মোস্তফা আহমেদ ইসহাক, লায়েক আহমদ, শেখ সিদ্দিক পারভেজ, শেখ মোহাম্মদ শরিফ, মো. আলী ইসলাম, মো. সুহেল মিয়া, রাসেল আহমদ, আফজল হোসেন, এনামুল কবির এনাম, আব্দুল মান্নান, নুরুজ্জামান, সৈয়দ মুহিম আজাদ, কাউসার আহমদ জুম্মান। রিয়াজ আহমদ, বাবলা আহমদ।

এসময় গোলাপগঞ্জ উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য নিহত জিলু আহমদ দিলুর রুহের মাগফেরাত কামনা করে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

সিলেট মহানগর যুবদলের সভাপতি শাহ নেওয়াজ বখত চৌধুরী তারেক এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মির্জা মো. সম্রাট হোসেনের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, যুবদল কেন্দ্রীয় সংসদের সহ সাধারণ সম্পাদক মকসুদ আহমদ, যুবদল কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির গ্রাম সরকার বিষয়ক সম্পাদক তৌহিদুল হাসান রিয়ন, সিলেট জেলা যুবদলের সভাপতি এডভোকেট মোমিনুল ইসলাম মোমিন, মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক কমিটির সাবেক সদস্য তোফাজ্জল হোসেন বেলাল।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক আহবায়ক কমিটির নেতৃবৃন্দের মধ্যে সোহেল মাহমুদ, নজরুল ইসলাম, কয়েস আহমদ, এমদাদুল হক স্বপন, মকসুদুল করিম নোহেল, উসমান গনি, এনামুল হক চৌধুরী শামিম, ইসহাক আহমদ প্রমুখ।

» শাহজালাল মাজারের ওরসে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হস্তান্তর করেছে সিসিক

Published: ২৬. মে. ২০২৪ | রবিবার

ডেস্ক নিউজঃ
প্রতি বছরের ন্যায় হযরত শাহজালাল (রহ.) এর মাজারের বার্ষিক ৭০৫তম ওরস মোবারক উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ৩টি গরু হস্তান্তর করেছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন।

সিসিক মেয়র মো. আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী যুক্তরাজ্যে সফরে থাকায় ভারপ্রাপ্ত মেয়র মো: মখলিছুর রহমান কামরান এ উপহার হস্তান্তর করেন।

রবিবার (২৬ মে) বিকাল সাড়ে ৫টায় মাজারের মতওয়াল্লী সরেকওম ফতেউল্লাহ আল আমানের কাছে এ ৩টি গরু হস্তান্তর করেন তিনি।

এসময় সিসিক ভারপ্রাপ্ত মেয়র মখলিছুর রহমান কামরান বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে প্রতি বছর ওরসের সময় মাজারে আগত ভক্তদের খাবারের জন্য গরু উপহার হিসেবে দেন। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ৩টি গরু হস্তান্তর করেছে সিটি কর্পোরেশন।’

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী সিলেটের মানুষের আবেগ-অনুভূতির সঙ্গেও সম্পৃক্ত। তাই সিলেটের বিশেষ বিশেষ দিনে তিনি উপহার সামগ্রী পাঠিয়ে থাকেন। যুক্তরাজ্য থেকে মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী সার্বক্ষনিক খবর রাখছেন এবং ওরসে আগত ভক্তদের কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি।

সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলদের মধ্যে আজাদুর রহমান আজাদ, শেখ তোফায়েল আহমদ শেপুল, আব্দুর রকিব বাবলু, জয়নাল আবেদীন, আব্দুল মুহিত জাবেদ, এস এম শওকত আমীন তৌহিদ, আব্দুর রকিব তুহিন, রায়হান হোসেন, হেলাল আহমদ, মো. রকিব খান, রেবেকা বেগম উপস্থিত ছিলেন।

কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রধান নির্বাহী কর্মকতার্ মো. ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী, প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান, সচিব আশিক নূর, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রধান লে. কর্নেল একলিম আবদীন (অব:), পরিবহন শাখা বিভাগীয় প্রধান লে. কর্নেল মাহমুদুল্লাহ সজীব (অব:), জনসংযোগ কর্মকর্তা সাজলু লস্কর সহ বিভিন্ন কর্মকর্তা এবং ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি মুফতি আব্দুল খাবির উপস্থিত ছিলেন।

» সিলেটের নাট্যকর্মী ও সংগঠক অনন্যা বিশ্বাস

Published: ২৬. মে. ২০২৪ | রবিবার

ডেস্ক নিউজঃ

তরুণ নাট্যকর্মী ও সংগঠক অনন্যা বিশ্বাস। এই শহরে জন্ম নিয়েছেন কত ক্ষঁণজন্মা কৃত্তিমান ব্যক্তি। অনেক জ্ঞানীগুণী সূফী সাধক। কর্মীমানুষ সবাই হয় না, কেবল তারাই হয় যারা সমাজ সচেতন।

এ ধরনের লোকেরা সমাজের, দেশের, জাতির অমূল্য সম্পদ। সেই গুনে গুণান্বিত তারুণ্যের অহংকার, নাট্যকর্মী অনন্যা বিশ্বাস।

২৮ জানুয়ারি ২০০৯ইং সালে তার জন্ম হয়। তিনি সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার স্থায়ী বাসিন্দা।

তিনি সিলেটের দেশ থিয়েটার, সিলেটের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা ও দেশ যুব সংগঠন সিনিয়র, সদস্য কাজ করে যাচ্ছেন। পিতা অরকুমার বিশ্বাস ও শীমা রানী বিশ্বাসের সুযোগ্য কন্যা তরুণ এই নাট্যকর্মী ও একজন সংগঠক অনন্যা বিশ্বাস।

তিনি এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন, আমার শত ব্যস্থতার মাঝে ও আরেকটি কাজ হচ্ছে, নবীন-প্রবীন, জ্ঞানী-গুণীকে যথাযত মূল্যায়ন করা।

প্রবাদে আছে, যে গুণীজনকে সম্মান করেনা, সে কখন ও সম্মানী হতে পারে না? অনন্যা বিশ্বাস এসএসসি পরীক্ষার্থী ও মধ্যবিত্ত ঘরের কন্যা সন্তান হলেও সে দেশে, সমাজে এবং সাংস্কৃতিক অঙ্গণে সুপরিচিত।

তিনি সিলেটের যোগ্য, দক্ষ একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবে সবার কাছে জানা চেনা। সে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে সক্রীয়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

এ সব সামাজিক সংগঠনে তার ভূমিকা ও উল্লেখযোগ্য। তাঁর ১ ভাই ও ২ বোন সহ অনেক আত্মীয় স্বজন রয়েছে।

যে কথা বলতে হয়, আজকের লেখাটি শেষ করতে চাই শুরু দিকের কথাগুলোর সার-সংক্ষেপ বিশ্লেষন করার মাধ্যমেই, সেটা হচ্ছে আমরা যদি সমাজের ইতিবাচক পরিবর্তন সাধনের মাধ্যমে সুখে-শান্তিতে বসবাস করতে চাই তাহলে অবশ্যই আমাদের ছেলে-মেয়েদেরকে শিক্ষিত করে গড়ে তোলার বিকল্প কিছুই নেই।

» আগামী প্রজন্মের জন্য মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে হবে : বীর মুক্তিযোদ্ধা রুমা চক্রবর্তী

Published: ২৬. মে. ২০২৪ | রবিবার

ডেস্ক নিউজঃ

সংরক্ষিত নারী আসন সিলেট বিভাগের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা রুমা চক্রবর্তী বলেছেন, আগামী প্রজন্মের জন্য মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে হবে।

যাঁদের ত্যাগের বিনিময়ে আমরা এই স্বাধীন দেশ পেয়েছি তাঁদেরকে যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করতে হবে। এ জন্য মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি সংরক্ষণ ও গবেষণা অপরিহার্য।

তিনি রবিবার (২৬ মে) সন্ধ্যায় নগরীর চৌহাট্টাস্থ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট মহানগর ইউনিট কমান্ড ও মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি সংরক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্রের যৌথ উদ্যোগে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট মহানগর ইউনিট কমান্ডের সাবেক কমান্ডার ভবতোষ রায় বর্মনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বীর প্রতীক আব্দুল মালেক, মুক্তিযুদ্ধ গবেষক অপূর্ব শর্মা।

বীর মুক্তিযোদ্ধা শুভেন্দু দাশের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা গুলজার খান, আবুল কালাম আজাদ, জাফর উল্লাহ চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মুত্তেস্বর পাল, গোপাল চন্দ, আবুল কাশেম, মো: আলী নূর, মঈনুদ্দিন রফিক, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সাঈদুর রহমান এপলু, মাঈদুল ইসলাম, শ্যামল দেবনাথ, অধীর সিংহ বর্মন, আবু সালেহ, প্রদীপ দাস, মো: মিজানুর রহমান প্রমুখ।

» আগামীকাল সোমবার সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রনালয় বরাবর স্মারকলিপি প্রদান

Published: ২৬. মে. ২০২৪ | রবিবার

ডেস্ক নিউজঃ

রিকশা-ব্যাটারি রিকশা-ভ্যান ও ইজিবাইক সংগ্রাম পরিষদ সিলেট মহানগর শাখার উদ্যোগে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আগামীকাল সোমবার (২৭ মে) সকাল ১১টায় আম্বরখানাস্হ সংগঠনের কার্যালয়ের সামনে জমায়েত শেষে নীতিমালা প্রণয়ন করে বিআরটিএ কর্তৃক ব্যাটারি চালিত যানবাহনের লাইসেন্স প্রদানের দাবিতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের মাধ্যমে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রনালয় বরাবর স্মারকলিপি পেশ করা হবে।

রোববার (২৬ মে) গণমাধ্যমে দেয়া এক বিবৃতিতে রিকশা-ব্যাটারি রিকশা-ভ্যান-ইজিবাইক সংগ্রাম পরিষদ সিলেট মহানগর প্রধান উপদেষ্টা ও সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট সিলেট জেলা শাখার আহ্বায়ক আবু জাফর, সংগ্রাম পরিষদের মহানগর শাখার সভাপতি প্রণব জ্যোতি পাল ও সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন এক যুক্ত বিবৃতিতে আগামীকাল সোমবার (২৭ মে) সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রনালয় বরাবর স্মারকলিপি পেশ সফল করার জন্য ব্যাটারি চালিত যানবাহন শ্রমিক-মালিকদের প্রতি আহ্বান জানান।

» নজরুলের চেতনা লালন করেই লুটেরাদের বিরুদ্ধে আন্দোলনকে গণ আন্দোলনে শানিত করার আহবান : মকসুদ হোসেন

Published: ২৫. মে. ২০২৪ | শনিবার

ডেস্ক নিউজঃ

দূর্নীতি মুক্তকরণ বাংলাদেশ ফোরাম কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মকসুদ হোসেন জাতীয় কবি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী কাজী নজরুল ইসলামের ১২৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, নজরুল শীর্ষ দূর্নীতিবাজ ও লুটেরাদের বিরুদ্ধে সর্বদা সিংহের মতো গর্জন করে গেছেন। সাম্য ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় তিনি ছিলেন আপোষহীন। ইসলামের বুনিয়াদের বিষয়টি তাঁর কবিতায় নিখুতভাবে তুলে ধরেছেন। হিন্দু, মুসলমান সহ সকল সম্প্রদায়ের কাছে তিনি নয়ন মনি হিসেবে আখ্যায়িত। নজরুলের মরদেহ বাংলার মাটিতে এনে কবর দেওয়ার জন্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কাছে দেশের মানুষ সহ কোটি কোটি নজরুলের প্রেমিরা চির কৃতজ্ঞ।

ভারত সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় নজরুলের দেশাত্মবোধক গান- “এমন দেশটি কোথাও খুঁজে পাবে নাকো তুমি, সকল দেশের রানী সে যে আমার জন্মভূমি” এই গানটি আরেকটি জাতীয় সংগীত করার জন্য বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা চৌকস প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহবান রেখে বলেন, ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের নজরুলের মাজারে স্বাধীনতা প্রিয় এই জাতিকে যাদের শাষন আমলে লাখো শহিদের রক্তে অর্জিত বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে দূর্নীতবাজ রাষ্ট্র হিসেবে পরিচয় করেছে, তাঁদেরকে নজরুলের কবরে দেশবাসী দেখতে চায় না। মোট কথা নজরুলের চেতনা লালন করেই লুটেরাদের বিরুদ্ধে আন্দোলনকে গণ আন্দোলনে শানিত করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আকুল আহবান জানান।

শনিবার (২৫ মে) সকাল ১০টায় রিকাবীবাজারস্থ নজরুল চত্ত্বরে জাতীয় কবি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী কাজী নজরুল ইসলামের ১২৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দূর্নীতি মুক্তকরণ বাংলাদেশ ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পনপূর্ব এক আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

কেন্দ্রীয় সদস্য শহীদ আহমদ খান শিব্বিরের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম সিলেট জেলা শাখার সেক্রেটারী বীর মুক্তিযোদ্ধা মুহি উদ্দিন আহমদ, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. অরুন কুমার দেব, কেন্দ্রীয় সিনিয়র সদস্য সরোজ ভট্টাচার্য্য, কামরান আহমদ প্রমুখ।

» বিখ্যাত শেফ কারি কিং টমি মিয়ার গ্রেট ব্রিটিশ কারি ফেস্টিভ্যাল আয়োজন

Published: ২৫. মে. ২০২৪ | শনিবার

ডেস্ক নিউজঃ

গ্রেট ব্রিটিশ কারী ফেস্টিভেল বিশ্ব বিখ্যাত কারী কিং টমি মিয়া এম.বি.ই এর রান্না প্রদর্শনী যার মাধ্যম আন্তর্জাতিক রন্ধন শিল্প বাণিজ্যকে উৎসাহিত করা এবং গ্রেট ব্রিটেন বহু সংস্কৃতিবাদের প্রচার ও প্রসার, পর্যটন ও আতিথিয়তা বৃদ্ধি, স্থানীয় ব্যবসাগুলোকে সমর্থন, দার্তব্য কাজে অবদান রাখা এবং এর প্রভাবকে আরো সমৃদ্ধ করার লক্ষ্যে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিখ্যাত রন্ধন শিল্পী টমি মিয়া এম.বি.ই’র সভাপতিত্বে হোটেল এ্যারিস্টোক্র্যাট ইন লিমিটেড, গুলশান, ঢাকায় টমি মিয়া’স হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট ইন্সটিটিউট এর উদ্যোগে গ্রেট ব্রিটিশ কারী ফেস্টিভেল বিশ্ব বিখ্যাত কারী কিং টমি মিয়া এম.বি.ই এর রান্না প্রদর্শনী যার মাধ্যম আন্তর্জাতিক রন্ধন শিল্প বাণিজ্যকে উৎসাহিত করা হয় এবং গ্রেট ব্রিটেন বহু সংস্কৃতিবাদের প্রচার ও প্রসার, পর্যটন ও আতিথিয়তা বৃদ্ধি, স্থানীয় ব্যবসাগুলোকে সমর্থন, দার্তব্য কাজে অবদান রাখা এবং এর প্রভাবকে আরো সমৃদ্ধ করার লক্ষ্যে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে।

আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, ডিরেক্টর ট্রেড ব্রিটিশ হাই কমিশন, শাহ ওয়ালীউল মনজুর, বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার, এসিবিএ, ইউকে, প্রফেসর ড. ইঞ্জিনিয়ার মোঃ হুমায়ুন কবির, ভাইস চেন্সেলার, প্রাইম ইউনিভার্সিটি, ঢাকা, ব্যারিস্টার তানিয়া হামিদ, ইয়াসির আরাফাত, কো ফাউন্ডার আপন বাজার, ড. ওয়ালী তাসার উদ্দীন এমবিএ, প্রেসিডেন্ট অব ইবিএফসিআই, প্রফেসর আজাদ, বার্ডেম হাসপাতাল, মোঃ তাজুল ইসলাম, ম্যানেজিং ডিরেক্টর, টমি মিয়া’স হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউট, কন্ঠশিল্পী মেহরীন, নায়ক সাজ্জাদ হোসেন, সুমন মিয়া ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শাহিন শাহ প্রমুখ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

বিশ্ব বিখ্যাত রন্ধনশিল্পী টমি মিয়া এম,বি,ই দীর্ঘকাল ধরে ফুড ফেস্টিভ্যাল উদযাপনের একজন চ্যাম্পিয়ন হিসেবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কাজ করছেন।

১৯৭৫ সাল থেকে কর্মজীবনের সাথে তিনি অক্লান্তভাবে গ্রেট ব্রিটিশ কারী স্বাদ প্রচার করছেন, প্রশংসা অর্জন করেছেন যার মধ্যে রয়েছে অসংখ্য রান্নার বই। এই বই লেখার পিছনে প্রয়াত এইচ এম রানি এলিজাবেথ এর ভূমিকা রয়েছে।

টমি মিয়ার বিশ্বজুড়ে ফুড ফেস্টিভেল আয়োজনের একটি সমৃদ্ধ ইতিহাস রয়েছে। সূচনা থেকেই এডিনবার্গ ফ্রিঞ্জ ফেস্টিভেলে নিয়মিত উপস্থিত রয়েছেন।

তাঁর রাজ রেস্তোরাঁ ১৯৮০ সাল থেকে ফুড ফেস্টিবলের জন্য একটি বিখ্যাত স্থান। যা বিশ্বব্যাপী রন্ধন শিল্পীদের তার উৎকর্ষের প্রতি তার উৎসর্গ বিশ্বব্যাপী সমাদৃত।

২০১৮ সালে বাণিজ্য ও শিল্প বিভাগ ভারত ও যুক্তরাজ্য ক্রিয়েটেক শীর্ষ সম্মেলনে গ্রেট ব্রিটেনের প্রতিনিধিত্ব করার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়ে টমি মিয়ার দক্ষতাকে স্বীকৃতি প্রদান করে।

তিনি তাঁর বিখ্যাত ফুড ফেস্টিভেলটি মুম্বাইয়ের ল্যান্ড এন্ড হোটেলে নিয়ে এসেছিলেন এবং এইচ আর এইচ প্রিন্স অ্যাওয়ার্ড সম্মানিত অতিথি ছিলেন, যা বিশ্বব্যাপী রন্ধন দূত হিসেবে টমি মিয়ার সুনামকে আরো দৃঢ় করে।

এখন ২০২৪ সালের জানুয়ারিতে তিনি গর্বের সাথে তার সবচেয়ে আকর্ষণীয় উচ্চ বিলাসী প্রচেষ্টা ঘোষণা করেছেন। এটি শুধুমাত্র রান্নার প্রদর্শনী নয় বরং এটি আন্তর্জাতিক কারী বাণিজ্য কে উৎসাহিত করা, গ্রেট ব্রিটেন বহুসংস্কৃতিবাদের প্রচার ও প্রসার, পর্যটন ও আথিতেয়তা বৃদ্ধি, স্থানীয় ব্যবসাগুলিকে সমর্থন এবং অমূল্য সংযোগের সুযোগ প্রদানের একটি প্লাটফর্ম।

ফেস্টিভ্যালের লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য হল দাতব্য কাজে অবদান রাখা এবং এর প্রভাবকে আরো সমৃদ্ধ করা। জিভিসিএফ হলো ১৯৯৩ সালে প্রতিষ্ঠিত টমি মিয়া ইন্টারন্যাশনাল ইন্ডিয়ান শেফ অফ দ্যা ইয়ার প্রতিযোগিতা ও আথিতেয়তা পুরস্কারের একটি বিভাগ, যা বিশ্বব্যাপী রন্ধন প্রতিভাকে স্বীকৃতি ও উদযাপনের প্রক্রিয়াকে আরও দৃঢ় করে।

একজন ব্রিটিশ বাংলাদেশি বিখ্যাত শেফ টমি মিয়া ব্রিটিশ ও বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতদের সমর্থন ও সহযোগিতার মাধ্যমে লন্ডন, পর্তুগাল, আজারবাইজান, বাকু, বাংলাদেশ এবং নেপালে বুকিং নিশ্চিত করেছেন এবং বিভিন্ন দেশে অনুষ্ঠান আয়োজনের আলোচনা চলছে।

জি বি সি এফের এর জন্য টমি মিয়ার দৃষ্টিভঙ্গি চিরাচরিত প্রথার বাহিরে ও প্রসারিত। এটি ৬০ এবং ৭০ দশকের রন্ধন শিল্পীদের ইতিহাস ও ঐতিহ্য তুলে ধরার এক উচ্চববিলাসী অভিপ্রায় যা দ্বারা পূর্ব পুরুষের সংগ্রাম ও ইতিহাস, ঐতিহ্য মানুষের সামনে তুলে ধরার এক আপ্রাণ প্রচেষ্টার একটি অংশ।

এখন যুক্তরাজ্যে ১০ হাজারের বেশি রেস্টুরেন্ট রয়েছে এবং ৫ বিলিয়ন পাউন্ডেরও বেশি ব্যবসা হচ্ছে।

তিনি পরবর্তী প্রজন্মের রন্ধন শিল্পীদের অনুপ্রাণিত করতে চান, তরুণ প্রতিভাদের কারি শিল্পে যোগ দিতে এবং অব্যাহত সমৃদ্ধি নিশ্চিত করতে উৎসাহিত করছেন। এমন এক সময়ে যখন রেস্টুরেন্টগুলি পরবর্তী প্রজন্মের প্রতিভাদের আকৃষ্ট করার ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়।

» সিসিকের অযৌক্তিক হোল্ডিং ট্যাক্স বাতিলের সিদ্ধান্তে অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ : সিলেট মহানগর নাগরিক সমন্বয় পরিষদ

Published: ২৫. মে. ২০২৪ | শনিবার

ডেস্ক নিউজঃ

দূর্নীতি মুক্তকরণ বাংলাদেশ ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি সিনিয়র আইনজীবী নাসির উদ্দিন, সিনিয়র সহ সভাপতি ইকবাল হোসেন চৌধুরী, সিলেট মহানগর নাগরিক সমন্বয় পরিষদের প্রধান সমন্বয়কারী ও দূর্নীতি মুক্তকরণ বাংলাদেশ ফোরামের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মকসুদ হোসেন, নাগরিক সমন্বয় পরিষদের আহবায়ক নেছারুল হক (বুস্তান স্যার), যুগ্ম আহবায়ক ও সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরামের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি চৌধুরী আতাউর রহমান আজাদ এডভোকেট, যুগ্ম আহবায়ক বদরুল ইসলাম চৌধুরী এডভোকেট, সদস্য সচিব ও সিলেট কল্যাণ সংস্থার সভাপতি মো. এহছানুল হক তাহের তাৎক্ষনিক এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, সিসিকের অযৌক্তিক ও বৈষম্যমূলক ধার্য্যকৃত হোল্ডিং ট্যাক্স বাতিলের সিদ্ধান্ত ও ঘোষনায় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর প্রতি সংগ্রামী অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, সিলেট নগরবাসীর সেন্টিমেন্ট ও গত ৫ মে দূর্নীতি মুক্তকরণ বাংলাদেশ ফোরামের পক্ষ থেকে হোল্ডিং ট্যাক্সের বিষয়ে স্মারকলিপি পেশ, সিলেট মহানগর নাগরিক সমন্বয় পরিষদ, সিলেট মহানগর নাগরিকবৃন্দ সহ বিভিন্ন ব্যানারে সংগঠনগুলোর প্রতিবাদকে গুরুত্বের সাথে বিবেচনায় নিয়ে মেয়র ও সিটি কাউন্সিল পর্ষদ এবং সংশ্লিষ্টদের এই সিদ্ধান্ত সময়োপযোগি।

নেতৃবৃন্দ বলেন, এই সফলতা সিসিক মেয়রের ও সিলেটের সচেতন নগরবাসীর।

আগামীতে সিলেটের যেকোন নায্য দাবি-দাওয়ার আন্দোলনে এভাবে সবাইকে সোচ্চার ভূমিকায় থাকার জন্য আকুল আহবান জানানো হয়।

» তীব্র তাপদাহে পথচারীদের মাঝে সিলেট মহানগর যুবলীগের পানি ও স্যালাইন বিতরণ

Published: ২৫. মে. ২০২৪ | শনিবার

ডেস্ক নিউজঃ

তীব্র তাপদাহ থেকে জনসাধারণকে স্বস্তি দিতে রিকশাওয়ালা, পরিবহন শ্রমিক ও পথচারীদের মাঝে বোতলজাত পানি ও খাবার স্যালাইন বিতরণ করেছে সিলেট মহানগর যুবলীগের নেতৃবৃন্দ।

শনিবার (২৫ মে) নগরীর আম্বরখানা পয়েন্টে দুপুর ২টায় সিলেট মহানগর যুবলীগের সভাপতি আলম খান মুক্তির নেতৃত্বে তৃষ্ণার্তদের হাতে হাতে সুপেয় পানি ও স্যালাইন তুলে দেওয়া হয়।

এ সময় আলম খান মুক্তি বলেন, পরিবেশ বিপর্যয়ের কারণে দেশে অতি গরমে অতিষ্ঠ মানুষদের সেবা দিতে আমি রাস্তায় এসেছি। অসহনীয় তাপমাত্রায় খেটে খাওয়া মানুষগুলো নিদারুণ কষ্টে পতিত হয়েছে। তারাই গায়ের ঘাম এবং শ্রম দিয়ে সভ্যতাকে আখরে রেখেছে। তাঁদের হাতে এক বোতল পানি ও স্যালাইন দিয়ে আমরা কর্তব্য পালন করছি।

তিনি আরও বলেন, তীব্র দাবদাহের কারণে হিটস্ট্রোক করে মানুষ মারা যাচ্ছে।

এজন্য আমরা মানুষের মধ্যে পানি বিতরণ করছি। আমরা চায় মানুষের ভেতরে পানি খাওয়ার অভ্যাস গড়ে উঠুক।

যুবলীগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের নির্দেশে আমরা সবার মধ্যে সুপেয় পানি, খাবার স্যালাইন বিতরণ করছি। আমাদের এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

সুপেয় পানি ও স্যালাইন বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন, সিলেট মহানগর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এমদাদ হোসেন ইমু, মনসুর হাসান চৌধুরী সুমন, আমিনুল ইসলাম আমিন, এমদাদুল হক উবেদ, শেখ মোহাম্মদ আমিন, জুয়েল আহমদ, মাহফুজ আহমদ প্রমুখ।

» পূবালী ব্যাংকের এন আই এ্যাক্ট মামলা সাজাপ্রাপ্ত আসামী চৌধুরী শামীম হামিদ জেল হাজতে

Published: ২৫. মে. ২০২৪ | শনিবার

ডেস্ক নিউজঃ

পূবালী ব্যাংকের দায়েরকৃত মামলায় সাজাপ্রাপ্ত সিলেটের ব্যবসায়ী চৌধুরী শামীম হামিদকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শনিবার (২৫ মে) আদালতের মাধ্যমে এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করে। এর আগে শুক্রবার দিবাগত রাত আড়াইটায় মার্লিন বিল্ডার্স (প্রাঃ) লিমিটেড এর এমডি চৌধুরী শামীম হামিদকে তাঁর জালালাবাদ আবাসিক এলাকার বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

জানা গেছে, পূবালী ব্যাংক লিমিটেড দরগা গেইট শাখা সিলেট থেকে মার্লিন বিল্ডার্স (প্রাঃ) লিমিটেড এর নামে ২৩ কোটি টাকা ঋণ গ্রহণ করেন চৌধুরী শামীম হামিদ।

এই অর্থ ব্যয় করে তিনি সিলেট শহরের সুবিদ বাজারে এবং নগরীর আখালিয়া সুরমা গেইটে ব্যাংকে বন্ধককৃত ভূমির উপর বেশ কয়েকটি আবাসিক ভবন নির্মাণ করেন।

ব্যাংক কর্তৃপক্ষ তাকে কিস্তির টাকা পরিশোধের জন্য বারবার চাপ দিলেও তিনি তা পরিশোধে ব্যর্থ হন। পরে তাঁর বিরুদ্ধে অর্থ ঋণ আদালতে ২টি এবং এন আই এ্যাক্ট-এ পৃথক ৬টি মামলা দায়ের করে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

মামলার দীর্ঘ শুনানী শেষে সম্প্রতি ৩টি মামলায় রায় ঘোষনা করেন, জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোঃ দিদার হোসেন।

রায়ে চৌধুরী শামীম হামিদকে দিগুন জরিমানা সহ বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়েছে।

এ প্রেক্ষিতে এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে শুক্রবার (২৪ মে) রাতে তাঁকে গ্রেফতার করে।

শনিবার (২৫ মে) আদালতের মাধ্যমে চৌধুরী শামীম হামিদকে জেলা হাজতে প্রেরণ করা হয়।

Callender

May 2024
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031