শিরোনামঃ-

» হত্যা না করেও ২৬ জনের উপর হত্যা মামলার করলো আওয়ামী লীগ

প্রকাশিত: ২৩. মে. ২০১৬ | সোমবার

জকিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলায় ২০১৬ সালের ৫ মে বিএনপি হরতালের ডাক দিলে মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান সেই হরতালে অংশগ্রহণ করেন। হরতালের মিছিলে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা হামলা চালালে তাদেরকে প্রতিহত করতে মিছিলে অংশগ্রহণকারী সবাই আপ্রাণ চেষ্টা করেন। সেসময় ঐ মিছিলের হামলায় আওয়ামী লীগের আলম মিয়া নামের একজন কর্মী আহত হন। পরবর্তীতে চিকিৎসাধীণ অবস্থায় ২০১৬ সালের ২০ মে হাসপাতালে মৃত্যবরণ করেন। এর পরের দিন অর্থাৎ ২০১৬ সালের ২১ মে নিহতের বাবা মিছিলে অংশগ্রহণকারী বিএনপির ২৬ জন নেতা কর্মীর বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন আলমের বাবা।

যাঁদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয় তাঁদের নাম, ১) আশরাফ (৩০), পিতা- সমরু, ২) এনাম (২৮), পিতা- সামাদ মিয়া, ৩) সামছ উদ্দিন (৫১), পিতা- আব্দুস শুকুর, ৪) মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান (২৪), পিতা- সামছ উদ্দিন, ৫) আক্তার (২৬), পিতা- মোক্তার মিয়া, ৬) আজির উদ্দিন (২৫), পিতা- নজিবুর রহমান, ৭) জুবায়ের আহমদ (৩০), পিতা- মাহফুজ আহমদ, ৮) হেলাল (২৮), পিতা- বেলাল উদ্দিন, ৯) আশরাফুল ইসলাম (২৬), পিতা- সাজিদুল ইসলাম, ১০) ছালিক আহমদ (২৮), পিতা- মালিক আহমদ, ১১) জুয়েল (২৭), পিতা- সুহেল আহমদ, ১২) বেলাল আহমদ (২৫), পিতা- জালাল আহমদ, ১৩) হিনু মিয়া (২৬), পিতা- মনু মিয়া, ১৪) হানিফ (২৭), পিতা- মনাফ, ১৫) শিমুল আহমদ (২৮), পিতা- জামাল আহমদ, ১৬) উবায়েদ (২৬), পিতা- জুবায়দুর রহমান, ১৭) আফসার (৩২), পিতা- মবশ্বির, ১৮) মন্নান ভুইয়া (৩১), পিতা- উবেদ ভুইয়া, ১৯) হালিম চৌ: (২৭), পিতা- মজম্মিল চৌ:, ২০) আছাদ (২৮), পিতা- মাসুক মিয়া, ২১) আজাদ (২৪), পিতা- সুজাদ মিয়া, ২২) লাল মিয়া (২৫), পিতা- কালা মিয়া, ২৩) কালু (২৫), পিতা- বংগাই, ২৪) জাহেদ (২৫), পিতা- সাহেদ মিয়া, ২৫) খালেদ (২৭), পিতা- সেলিম আহমদ ও ২৬) মৌল্লা এফাজ (৩২), পিতা- মৌলভী আফজালুর রহমান। সবার ঠিকানা জকিগঞ্জ।

ঐ মামলায় ৪নং আসামী করা হয় মোহাম্মদ হাবিবুর রহমানকে এবং ৩নং আসামী করা তার পিতা  সামছ উদ্দিনকে। বাস্তবে ঐ মিছিলে মোহাম্মদ হাবিবুর রহমানের পিতা সামছ উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন না। তার উপর মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়। এর পরের দিন অর্থাৎ ২০১৬ সালের ২২ মে সামছ উদ্দিনকে তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সো-মিল থেকে পুলিশ গ্রেফতার করে।

২২ মে যাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে । সামছ উদ্দিন (৫১) আজাদ (২৪) জুয়েল (২৭) মৌলা এফাজ (৩২) কালু (২৫) এই ৫ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করে হাজতে নিয়ে যায় ২২ মে। বর্তমানে বাংলাদেশ সরকার সকল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের কর্মীর উপর মিথ্যা মামলা এবং বিভিন্ন হয়রানিমূলক প্রবলন সৃষ্টি করেছে এবং স্বৈরাচার সরকার আওয়ামী লীগ বাংলাদেশ থেকে গণতন্ত্র তুলে দিচ্ছে এবং বাংলাদেশের সঠিক সময়ে কোন নির্বাচন দিচ্ছে না তাই বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল যুবদল এবং জাতীয়তাবাদী দলের সকল কর্মী ভিন্নভাবে জেল জুলুম নির্যাতন করছে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১২৫৬০ বার

Share Button

Callender

December 2022
M T W T F S S
« Nov    
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031