শিরোনামঃ-

» সিলেট সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশ জনিত সীমান্ত হত্যা বন্ধে বিজিবি’র সমন্বিত উদ্যোগ

প্রকাশিত: ০৫. জুলাই. ২০২০ | রবিবার

স্টাফ রিপোর্টারঃ
সিলেট সীমান্তে বাংলাদেশী নাগরিক কর্তৃক ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশ জনিত সীমান্ত হত্যা বন্ধে বাংলাদেশ সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিজিবি) সমন্বিত বিশেষ উদ্যোগ গ্রহন করেছে।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সিলেট সেক্টরের অধীনস্থ ৪৮ বিজিবি’র সিলেট ব্যাটালিয়নের পরিচালক ও অধিনায়ক লে. কর্ণেল আহমেদ ইউসুফ জামিল, পিএসসি রবিবার (৫ জুলাই) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।

এতে তিনি উল্লেখ করেন যে,চলতি বছরের ২৩ মে তারিখ হতে অদ্যবদি পর্যন্ত সিলেট জেলার গোয়াইনঘাট, কোম্পানিগঞ্জ ও জৈন্তাপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী জনসাধারণ গরু ও সুপারি চোরাচালান, আনারস, কাঁঠাল চুরি ইত্যাদি কারনে সীমান্ত আইন লঙ্ঘন করে অবৈধভাবে অসৎ উদ্দেশ্যে ভারতের অভ্যন্তরে যাতায়াতের মাত্রা সম্প্রতি বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিগত ৩ মাসে এ জাতীয় অবৈধ ও সীমান্ত অপরাধের দরুন ভারতীয় খাসিয়া নাগরিক ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) এর গুলির আঘাতে উল্লেখিত সীমান্তবর্তী এলাকর মোট ৪ জন নিহত ও ৮ জন বাংলাদেশী নাগরিক আহত হয়েছেন।

এ প্রেক্ষিতে সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশী নাগরিকদের অবৈধ অনুপ্রবেশ রোধ করতে বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) অভিযানিক দায়িত্ব তথা জনসচেতনতামুলক কর্মকাণ্ড এবং টহলদারি ছাড়াও নিম্নোক্ত ব্যবস্হা জোরদার করা হচ্ছে।

১) সংশ্লিষ্ট সকলকে অর্থাৎ স্হানীয় প্রশাসন, পুলিশ ও জনপ্রতিনিধিদেরকে সম্পৃক্ত করে সীমান্ত এলাকায় ব্যাপক জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম গ্রহণ।

২) অনাকাঙ্খিত সীমান্ত হত্যার ব্যাপারে প্রতিপক্ষ বিএসএফ বরাবরে এসব ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি বাংলাদেশী নাগরিকদের হত্যাকারী/অপরাধী ভারতীয় খাসিয়া নাগরিকদের আইনের আওতায় নিয়ে আসার ব্যাপারে তাগাদা প্রদান ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন।

৩) সীমান্তে অনুপ্রবেশরোধ ও নিরুৎসাহিত করতে সীমান্তবর্তী এলাকার জনসাধারণের কর্মসংস্থান সৃষ্টি তথা অর্থনৈতিকভাবে তাদেরকে স্বাবলম্বী করতে স্হানীয় প্রশাসন, পুলিশ, জনপ্রতিনিধি সহ এনজিও সমুহকে সম্পৃক্ত করার পদক্ষেপ আরে জোরদার করা হচ্ছে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরে উল্লেখ করা হয়, চলমান বৈশ্বিক মহামারি করোনা পরিস্থিতিতে অর্থনৈতিক মন্দা ও অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড হ্রাসের ফলে সীমান্ত এলাকার জনসাধারণ কর্মহীন অসহায় হয়ে পড়েছে। তাদের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড বিশেষত করোনা পরিস্থিতিতে তাদের জীবন জীবিকা আরো প্রকট আকার ধারণ করতে পারে বলে প্রতিয়মান।

এই উপলব্ধি বিবেচনায় নিয়ে সীমান্তবর্তী জনগনকে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে নিয়োজিত রাখা অতীব জরুরী বলে মনে করে বিজিবি।

উল্লেখ্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী (মুজিববর্ষ) উদযাপন উপলক্ষে বিজিবি সিলেট সেক্টর এর উদ্যোগে সিলেট জেলার সীমান্তবর্তী অসহায় ও হতদরিদ্র জনসাধারণের বিকল্প আয়ের উৎস হিসেবে “আলোকিত সীমান্ত” প্রকল্পের আওতায় হতদরিদ্র জনসাধারণের মধ্য হতে আগ্রহীদেরকে স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে ইতোমধ্যে উদ্যোক্তা নির্বাচনের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৯০ বার

Share Button

Callender

August 2020
M T W T F S S
« Jul    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31