শিরোনামঃ-

» সম্মিলিত নাট্য পরিষদ ও রবীন্দ্রসংগীত সম্মিলন পরিষদের কালরাত্রি স্মরণ

প্রকাশিত: ২৫. মার্চ. ২০২৪ | সোমবার

সকল আধাঁর দূর করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে আলোক প্রজ্বলন

ডেস্ক নিউজঃ

সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেট ও জাতীয় রবীন্দ্রসংগীত সম্মিলন পরিষদ সিলেট এর আয়োজনে ২৫শে মার্চ ভয়াল কালরাত্রি স্মরণে আলোক প্রজ্বলন করা হয় সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার প্রাঙ্গণে।

রাত ১০টায় আলোক প্রজ্বলন অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, সাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন পেশার মানুষ উপস্থিত হন।

সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেট এর সভাপতি রজত কান্তি গুপ্ত এর সভাপতিত্বে ও মোস্তাক আহমেদের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও রাজনীতিবিদ এডভোকেট বেনানন্দ ভট্টাচার্য।

ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন, জাতীয় রবীন্দ্রসংগীত সম্মিলন পরিষদ সিলেট এর সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী প্রতিক এন্দ টনি।

এসময়ে উপস্থিত ছিলেন, বীরমুক্তিযোদ্ধা ভবতোষ রায়বর্মন, বীরমুক্তিযোদ্ধা কবি তুষার কর, বীর মুক্তিযোদ্ধা শুভেন্দু দাস, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আল আজাদ, নিরঞ্জন দে যাদু, প্রতীক এন্দ টনি, শামসুল বাসিত শেরো, বেলাল আহমদ, অপূর্ব শর্মা, কবি ধ্রুব গৌতম, আমিরুল ইসলাম বাবু, সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের পরিচালক অর্ধেন্দু দাশ, খোয়াজ রহিম সবুজ ডঃ অভিজিৎ দাস জয়, দেবব্রত পাল মিন্টু, নীলাঞ্জন দাস টুকু, বিপ্লব শ্যাম পুরকায়স্থ সুমন, হুমায়ুন কবীর জুয়েল, সুকান্ত গুপ্ত, সুমন্ত গুপ্ত, নাজমা পারভীন, বীমা দাস, তন্ময় নাথ তনু, নাহিদ পারভেজ বাবু, এখলাছ আহমদ তন্ময়, সুমন,আশরাফুল ইসলাম অনি।

বক্তারা বলেন, বাঙ্গালির মুক্তিসংগ্রামের ইতিহাস প্রজন্ম থেকে প্রজন্মের কাছে ছড়িয়ে দেয়া মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রতিটি মানুষের দায়িত্ব।

তাঁরা বলেন, এখনো ঘাপটি মেরে থাকা কিছু অপশক্তি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের স্বাধীনতার চেতনার বিরুদ্ধে কাজ করছে, তাঁরা আমাদের সাংস্কৃতিক অগ্রযাত্রাকে ভয় পায়।

বক্তারা বলেন, সকল আঁধার দূর করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে কাজ করতে হবে।

আলোক প্রজ্বলন কালে ২৫শে মার্চ কালরাত্রি স্মরণে দাঁড়িয়ে একমিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৮০ বার

Share Button

Callender

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031