শিরোনামঃ-

» রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির ফাষ্ট এইড এবং সন্ধান ও উদ্ধার প্রশিক্ষনের উদ্বোধন

প্রকাশিত: ২২. সেপ্টেম্বর. ২০২২ | বৃহস্পতিবার

প্রশিক্ষনলব্ধ জ্ঞান নিজের ও এলাকার উন্নয়নে কাজে লাগানোর আহবান : মস্তাক আহমদ পলাশ

স্টাফ রিপোর্টারঃ
বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির জাতীয় সদর দপ্তর ঢাকার ব্যবস্থাপনা পর্ষদ সদস্য মস্তাক আহমদ পলাশ বলেছেন, রেডক্রিসেন্টের ভলান্টিয়াররা হচ্ছে রেডক্রিসেন্টের প্রান, ভলান্টিয়ার ছাড়া রেডক্রিসেন্ট চলতে পারে না।

এজন্য ভলান্টিয়ারদের দক্ষ হয়ে গড়ে উঠতে হবে এবং দক্ষ হয়ে গড়ে উঠতে প্রশিক্ষনের বিকল্প নেই। প্রশিক্ষনের প্রধান কাজ হচ্ছে শৃংখলা। তাই সবাই প্রশিক্ষনে শৃংখলা মেনে সময়কে কাজে লাগিয়ে সময়োপযোগী প্রশিক্ষন গ্রহন করে প্রশিক্ষনলব্ধ জ্ঞান শুধু নিজের পারিবারিক সামাজিক জীবন ও এলাকার উন্নয়নে কাজে লাগানোর আহবান জানান।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিটের উদ্যোগে ও বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির পিএন্ডডি বিভাগ ও আইসিআরসি সহযোগীতায় ৬ দিনব্যাপী ভলান্টিয়ার প্রশিক্ষনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

আজ বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকালে খাদিম পীরের বাজার ব্রাক ট্রেনিং সেন্টারে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিটের উদ্যোগে ও বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির পরিকলাপনা উন্নয়ন বিভাগ(পিএন্ডডি) ও আন্তজার্তিক রেডক্রস কমিটির (আইসিআরসি) সহযোগীতায় ৬ দিনব্যাপী ফাষ্ট এইড এবং সন্ধান ও উদ্ধার প্রশিক্ষনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিটের সাধারন সম্পাদক আব্দুর রহমান জামিল।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য সিলেটের সাবেক যুব প্রধান নাজিম খান। বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির উপপরিচালক মো আব্দুস সালামের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির পিএন্ডডি বিভাগ এর প্রজেক্ট অফিসার রাকিবুল আলম রাব্বি, প্রশিক্ষন সমন্ধয়কারী সুপ্রিয়া সাহা, প্রশিক্ষক ইব্রাহিম খলিল প্রমূখ।

উল্লেখ্য, ৬ দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষনে সিলেট ও কানাইঘাটের যুব রেডক্রিসেন্টের ৬০ জন স্বেচ্ছাসেবক অংশগ্রহন করছেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৭ বার

Share Button

Callender

September 2022
M T W T F S S
« Aug    
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930