শিরোনামঃ-

» বাড়তে পারে সিম পুনঃনিবন্ধনের সময়!

প্রকাশিত: ৩০. এপ্রিল. ২০১৬ | শনিবার

সিলেট বাংলা নিউজ ডেস্কঃ নির্ধারিত সময় শেষে প্রায় ৪ কোটি সিম ও রিম বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে পুনঃনিবন্ধন বাকি থাকায় এই কার্যক্রমের জন্য সময় বাড়াচ্ছে সরকার!

মোবাইল ফোন অপারেটরদের পক্ষ থেকে ১ মাস সময় চাওয়া হলেও তা ১৫ দিন বাড়ানো হতে পারে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর সিম পুনঃনিবন্ধন কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরুর পর সাড়ে ৪ মাসে নির্ধারিত সময় ৩০ এপ্রিলের অাগের দিন পর্যন্ত ৮ কোটি সিম নিবন্ধন ছাড়িয়ে গেছে বলে জানান ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

সিম নিবন্ধনের শেষ দিনের আগের দিন শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) সাংবাদিকদের কাছে এ কার্যক্রমের সময় বাড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘জনগণের সমস্যা, সুবিধা-অসুবিধার প্রতিও আমরা সবসময় শ্রদ্ধাশীল। কালকে(শনিবার) আপনাদের জানিয়ে দেব, আমি আরেকটু বুঝি।’

ঘোষণা অনুযায়ী, ৩০ এপ্রিল রাত ১০টা পর্যন্ত অপারেটরদের কাস্টমার কেয়ার সেন্টার ও রিটেইলার পয়েন্ট এবং এনআডি প্রধান অফিসসহ আঞ্চলিক অফিসগুলো খোলা থাকছে।

পুনঃনিবন্ধনের সময় বাড়ছে কিনা, এ বিষয়ে শনিবার (৩০ এপ্রিল) বিকেল ৫টায় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) ভবনে সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা দেবেন প্রতিমন্ত্রী। এদিকে, পুনঃনিবন্ধনের শেষ সময়ে চাপ পড়ায় ভোগান্তিতে পড়েন গ্রাহকরা।

অপারেটররা দাবি করছে, অতিরিক্ত চাপে এনআইডি (জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগ) সার্ভার ডাউন হওয়ার কারণে ঠিকমতো রিপ্লাই আসছে না। আর এনআইডি বলছে, সার্ভার ডাউন হওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

বিটিআরসির সর্বশেষ মার্চ মাসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, দেশে বর্তমানে মোবাইল ফোনের গ্রাহক সংখ্যা ১৩ কোটি ৮ লাখ ৮১ হাজার।

বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিবন্ধনে গ্রাহকদের পুরনো সিম আঙ্গুলের ছাপ দিয়ে নিবন্ধন করতে হচ্ছে, নতুন সিমের ক্ষেত্রে আঙ্গুলের ছাপ বাধ্যতামূলক। এই প্রক্রিয়ায় আঙ্গুলের ছাপ বায়োমেট্রিক ডিভাইসের মাধ্যমে এনআইডি সার্ভারে যাওয়ার পর সেখান থেকে সাড় পেলেই সেই সিমটি নিবন্ধন করা যাচ্ছে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৫৩০ বার

Share Button

Callender

April 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930