শিরোনামঃ-

» সিলেটে জমি সহ ঘর পাবে ১৮৩ ভুমিহীন পরিবার : জেলা প্রশাসক

প্রকাশিত: ০৯. জুন. ২০২৪ | রবিবার

নিউজ ডেস্কঃ

সিলেটের জেলা প্রশাসক শেখ রাসেল হাসান বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৫ম পর্যায়ে ২য় ধাপের ১৮৩ ভুমিহীন পরিবার জমি সহ ঘর পাবে।

১৮৩টি ঘরের মধ্যে ওসমানীনগরে ১১০টি, বিশ্বনাথে ৩টি, গোয়াইনঘাটে ৪০টি ও বিয়ানীবাজারে ৩০টি। ওসমানীনগর ও বিশ্বনাথ উপজেলার ১১৩টি গৃহের নির্মাণ কাজ শতভাগ সম্পন্ন হয়েছে।

রবিবার (৯ জুন) দুপুর ২টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আগামী ১১ জুন মঙ্গলবার সকাল ১১টায় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভূমিহীন -গৃহহীন পরিবারকে ৫ম পর্যায়ের (২য় ধাপ) জমি সহ গৃহ প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব তথ্য জানান।

তিনি আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাত ধরেই ১৯৭২ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি তৎকালীন নোয়াখালী (বর্তমান লক্ষীপুর) জেলার রামগতি উপজেলার চরপোড়াগাছা গ্রামে ভূমিহীন-গৃহহীন, অসহায় ছিন্নমূল মানুষের পুনর্বাসন কার্যক্রম শুরু হয়।

তাঁর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৬ সালে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব গ্রহণ করে বঙ্গবন্ধুর জনবান্ধব ও উন্নয়নমূলক কার্যক্রমগুলো পুনরায় শুরু করেন।

তিনি ‘অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের মডেল’ প্রবর্তনের মাধ্যমে পিছিয়ে পড়া মানুষকে মূলধারায় উন্নয়নের সম্পৃক্ত করার নিমিত্ত কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন।

এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৯৭ সালে বঙ্গবন্ধুকন্যা কক্সবাজার জেলার সেন্টমার্টিনে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পুনর্বাসনের উদ্যোগ নেন এবং একই বছর তিনি সারাদেশের গৃহহীন-ভূমিহীন মানুষকে পুনর্বাসনের লক্ষ্যে শুরু করেন “আশ্রয়ণ প্রকল্প”।

জেলা প্রশাসক বলেন, “বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না” মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এ নির্দেশনা বাস্তবায়নে দেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ২ শতক করে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

আগামী মঙ্গলবার (১১ জুন ২০২৪) সকাল ১১টায় মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ৫ম পর্যায়ে ২য় ধাপে ২ শতক জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রমের নির্ধারিত গৃহসমূহ উপকারভোগী পরিবারের নিকট হস্তান্তর কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠান আয়োজিত হবে।

এই অনুষ্ঠানে দেশের ৫১ জেলার ১৮৮টি উপজেলার ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ২ শতক করে জমিসহ গৃহ প্রদান করা হবে।

উদ্বোধনী দিনে সিলেট জেলার ৪টি উপজেলা- বিয়ানীবাজার, বিশ্বনাথ, গোয়াইনঘাট ও ওসমানীনগরে মোট ১৮৩টি গৃহ হস্তান্তর করা হবে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক গত ১৪.১১.২৩ তারিখে সিলেট জেলাকে “ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত” জেলা ঘোষণা করা হয়।

সর্বশেষ ২৮.১২.২০২২ তারিখে হালনাগাদকৃত তালিকা অনুযায়ী সিলেট জেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের সংখ্যা ৫৪৭২টি।

৫৪৭২টি পরিবারকে ১ম, ২য়, ৩য়, ৪র্থ ও ৫ম পর্যায়ে যথাক্রমে ৩১৩১, ১১৫, ১১৫৮, ৯৫৫ ও ১১৩টি মোট ৫৪৭২টি গৃহ বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে।

সিলেট জেলার গোয়াইনঘাট উপজেলায় ৪০টি ও বিয়ানীবাজার উপজেলায় ৩০টি দীর্ঘ দিনের পুরাতন জরাজীর্ণ সি আই শীট ব্যরাক প্রতিস্থাপন করে সেমি পাকা একক গৃহ নির্মাণের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

এছাড়াও বিশ্বনাথ উপজেলার অন্তর্গত রামপাশা ইউনিয়নের আমতৈল গ্রামে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দে ৭১টি প্রতিবন্ধী পরিবারকে একটি করে খ-শ্রেণির সেমিপাকা গৃহ নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে।

বঙ্গবন্ধুকন্যা সম্পদের সুষম বণ্টনের লক্ষ্যে আশ্রযয়ণ প্রকল্পের মাধ্যমে হতদরিদ্র ভিক্ষুক, বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা, ভূমিহীন, গৃহহীন, ছিন্নমূল মানুষকে ভূমি ব্যবহারের আওতায় এনে অন্যান্য সামাজিক সুবিধা প্রাপ্তির ব্যবস্থা করে দিয়েছেন।

জলবায়ু উদ্বাস্তু, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী, তৃতীয় লিঙ্গ (হিজড়া), বেদে, ভিক্ষুক, দলিত, হরিজনসহ সমাজের পিছিয়ে পড়া অন্যান্য সম্প্রদায়কেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে এ কর্মসূচিতে।

একটি ভূমিহীন পরিবারের একটি ঘর পাওয়ার মাধ্যমে দারিদ্যের দুষ্টচক্র থেকে বের হয়ে আসার অপার সম্ভাবনা তৈরী হয়।

মুজিববর্ষে বিশেষ উদ্যোগে সমাজের ছিন্নমূল মানুষকে জমি ও গৃহ প্রদানের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের মাধ্যমে বাংলাদেশকে ২০৪১ সালের মধ্যে আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশে রূপান্তর করতে সক্ষম হবো।

উপস্থিত সাংবাদিদের উদ্দেশ্যে জেলা প্রশাসক বলেন, ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারকে পুনর্বাসনের লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্পের কার্যক্রমের সাফল্য প্রচারে অব্যাহত সহযোগীতা আমরা সবসময় কামনা করি।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারের মধ্যে একক গৃহ হস্তান্তর উপলক্ষ্যে জেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত প্রেস কনফারেন্সে উপস্থিত হয়ে সরকারের এই মহতী উদ্যোগকে সকল স্তরের জনগণের মধ্যে প্রচারের লক্ষ্যে সহযোগীতা করার জন্য তিনি সাংবদিকদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৬ বার

Share Button

Callender

June 2024
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930