শিরোনামঃ-

» বাংলাদেশ মণিপুরী ছাত্র সমিতি (বামছাস) এর ৪০ বছরে পদার্পণ ও দ্বি বার্ষিক মহাসম্মেলন

প্রকাশিত: ১৯. এপ্রিল. ২০২৪ | শুক্রবার

সিলেটি হিসেবে বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাড়াতে চাই : মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী

ডেস্ক নিউজঃ

বাংলাদেশ মণিপুরী ছাত্র সমিতি দ্বি-বার্ষিক মহাসম্মেলন-২০২৪ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) নগরীর কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ হলে সকাল ১১টায় এই মহাসম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

বামছাসের প্রতিষ্ঠাকালীন কোষাধক্ষ্য শেরাম প্রমোদ সিংহ এর সভাপতিত্বে ও সত্যজিৎ সিংহ এর পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী।

প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, এন এম এডুকেশন ট্রাস্ট এর চেয়ারম্যান এল, নন্দলাল সিংহ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট জেলা যুবলীগের সহ সভাপতি এডভোকেট আব্দুল মতিন, যুক্তরাজ্য আওয়ামী যুবলীগের সহ সভাপতি মোজাহিদ আলী সুহেল, সিলেট নগরীর বালুচরের শ্রীশ্রী দূর্গাবাড়ির পরিচালক রাজেশ চক্রবর্তী, হলিসিটি পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মোঃ সাইফুল করিম চৌধুরী হায়াত, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ শ্রীমঙ্গলের উপদেষ্টা হিরন্ময় সিংহ, বামছাসের সাবেক সহ-সভাপতি গোপাল শর্মা।

৪০ বছর পূর্তি ও দ্বি বার্ষিক সম্মেলনে সার্বিক সহযোগিতা করেন বামছাস এর প্রধান উপদেষ্টা অসেম সত্যজিত সিংহ।

মহা সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, “মণিপুরী সম্প্রদায়ের স্বতন্ত্র ইতিহাস ঐতিহ্য রয়েছে।

সকল ধর্ম, বর্ণ ও সম্প্রদায়ের মানুষ যুগ যুগ ধরে সিলেটে সুখে শান্তিতে বসবাস করছে এবং আমরা সবাই মিলে পরিচয় সিলেটি।

সিলেটী হিসেবে বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে চাই মণিপুরী সমাজের মানুষ খুবই শান্তিপ্রিয়, তাঁদের সুখে দুঃখে সব সময় রয়েছি। মণিপুরী ছাত্র সমাজের জন্য সিলেট সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে একটি আলাদা হোস্টেল তৈরি করে দেওয়া হবে।

মণিপুরী শিক্ষার্থীরা উন্নত বাংলাদেশ গড়তে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করি। সিলেট নগরীকে দেশের মধ্যে সেরা ও স্মার্ট নগরী গড়তে আপনাদের সবার সহযোগিতা চাই।”

সম্মেলনে ময়েংবম মুকেশ কে সভাপতি, সিদ্ধার্থ সিংহ কে সাধারণ সম্পাদক ও রওশন সিংহকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ২৭ সদস্য বিশিষ্ট ২বছরের জন্য বাংলাদেশ মণিপুরী ছাত্র সমিতির কমিটি গঠন করা হয়।

দ্বি বার্ষিক সম্মেলনের পাশাপাশি বাংলাদেশ মণিপুরী ছাত্র সমিতির (বামছাস) এর ৪০বছর পূর্তি উপলক্ষ্যেও বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহন করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ‘নুংশিবা খোঞ্জেল- ৪’ শিরোনামে ক ও খ দুইটি গ্রুপে সংগীত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

বিজয়ীরা হলেন, ক গ্রুপের সুপ্রভা সিনহা, লাইস্রাম ইস্পিহা সিনহা, সানারিক সিনহা, খ গ্রুপের বীতিকা সিনহা, কংকাম ইচেল, সজল ক্যাতরিমাইয়াম।

অনুষ্ঠানে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর কাছ থেকে সংগীত প্রতিযোগিতার পুরস্কার ও বৃত্তি পরীক্ষার পুরস্কার ও সনদ গ্রহন করেন বিজয়ীরা।

এ সময় মণিপুরী সম্প্রদায়ের বিভিন্ন শ্রেণি পেশার ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৩ বার

Share Button

Callender

May 2024
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031