শিরোনামঃ-

» স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে বাউবির বহুমুখী শিক্ষার বিকল্প নেই: ড. সৈয়দ হুমায়ুন আখতার

প্রকাশিত: ০৫. ফেব্রুয়ারি. ২০২৪ | সোমবার

ডেস্ক নিউজঃ

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৈয়দ হুমায়ুন আখতার বাউবির সিলেট আঞ্চলিক কেন্দ্রে আঞ্চলিক কেন্দ্র এবং উপ-আঞ্চলিক কেন্দ্রের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সাথে সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সিলেট আঞ্চলিক কেন্দ্রের সভাকক্ষে এক মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহণ করেন।

হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ এবং ছাতক উপ-আঞ্চলিক কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণ স্ব-স্ব উপ-আঞ্চলিক কেন্দ্রের একাডেমিক এবং প্রশাসনিক বিষয়ে আলোচনা করেন। কর্মকর্তাগণ উপ-আঞ্চলিক কেন্দ্রে সেবা সহজীকরণে এবং মানসম্মত শিক্ষা বিস্তারে। একনিষ্ঠভাবে কাজ করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। সিলেট আঞ্চলিক কেন্দ্রের আঞ্চলিক পরিচালক মো: খালেকুজ্জামান খান তিনি আঞ্চলিক কেন্দ্রর সার্বিক বিষয়ে আলোচনা করেন। বাউবির বহুমুখী শিক্ষা কার্যক্রমের মাধ্যমে সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীকে শিক্ষিত ও দক্ষ হিসেবে গড়ে তোলে দারিদ্র্য বিমোচনে অবদান রাখার জন্য সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে আহবান জানান।

বাউবির মাননীয় উপাচার্য, বিশিষ্ট ভূ-তত্ত্ববিদ অধ্যাপক ড. সৈয়দ হুমায়ুন আখতার বলেন, “বাউবি উন্মুক্ত, কর্মমুখী, গণমুখী ও জীবনব্যাপী শিক্ষা কার্যক্রমের মাধ্যমে সমাজের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে দক্ষ, কর্মক্ষম ও স্বাবলম্বী হিসেবে গড়ে তুলছে যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর রূপকল্প ২০৪১ এবং টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনে ভূমিকা রাখছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গিকার ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ গড়তে হলে স্মার্ট নাগরিক হতে হবে, স্মার্ট নাগরিক হতে হলে তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর বহুমুখী শিক্ষার বিকল্প নেই, বাউবি স্মার্ট নাগরিক গড়ে তোলার জন্য সারা দেশে ১২ আঞ্চলিক কেন্দ্র, ৮০ টি উপ-আঞ্চলিক কেন্দ্র, ১৫৬২ টি স্টাডি সেন্টারে মাধ্যমিক থেকে পিএইচডি পর্যন্ত মোট ৮০ টি ফরমাল ও নন-ফরমাল প্রোগ্রামের মাধ্যমে একাডেমিক কার্যক্রম পরিচালনা করছে”।

সিলেট অঞ্চলের মানুষ বিদেশমুখী হওয়ায় ইউরোপে সিলেটের একটি বড় কমিউনিটি তৈরী হয়েছে, যারা সে দেশে ব্যবসা, চাকুরী এবং রাজনীতিতে যুক্ত হয়েছেন। এই বিশাল জনগোষ্ঠীর মধ্যে যারা সময় ও সুযোগের অভাবে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা গ্রহণ করতে পারেন নি তাদের জন্য লন্ডনে বাউবির একাডেমিক কার্যক্রম চালু করার আশ্বাস দেন বাউবির উপাচার্য মহোদয়। তিনি কর্মমুখী শিক্ষার অংশ হিসেবে এবং খাদ্যে স্বনির্ভরতা অর্জনের জন্য ফুড প্রসেসিং বিষয়ে একাডেমিক প্রোগ্রাম চালুর কথাও ব্যক্ত করেন। তিনি আরো বলেন, “সিলেট অঞ্চলের কওমি মাদরাসার শিক্ষার্থীদের কাছে উন্মুক্ত ও দূরশিক্ষণের মাধ্যমে আধুনিক যুগোপযোগী বৃত্তিমূলক শিক্ষার আলো পৌঁছানো হবে”।

তিনি বাউবির সিলেট আঞ্চলিক কেন্দ্র এবং উপ-আঞ্চলিক কেন্দ্রের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে বাউবির মানসম্মত-কর্মমুখী শিক্ষা বিস্তারে একযোগে কাজ করার আহবান জানান। মতবিনিময় সভা শেষে উপাচার্য সিলেট আঞ্চলিক কেন্দ্রে বৃক্ষরোপন করেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪৩ বার

Share Button

Callender

March 2024
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031