শিরোনামঃ-

» হৃদয়ে একাত্তর ফাউন্ডেশনের সংবর্ধনা পঁচাত্তরে কোন কিছু পাওয়ার জন্য খুনী খন্দকার মোশতাককে প্রতিহত করিনি : এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ

প্রকাশিত: ০৭. ফেব্রুয়ারি. ২০২২ | সোমবার

স্টাফ রিপোর্টারঃ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেছেন, পঁচাত্তরে কোন কিছু পাওয়ার জন্য খুনী খন্দকার মোশতাককে প্রতিহত করিনি। দেশ ও দেশের মানুষকে বাঁচাতে এই প্রতিরোধ করেছিলাম। এই খুনী মোস্তাক ষড়যন্ত্র করে জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে খুন করেছিল। যতদিন বেঁচে থাকবো ততদিন এই দেশের মানুষ ও আওয়ামী লীগের জন্য কাজ করে যাবো।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে যারা যড়যস্ত্র করবে তাদের বিরুদ্ধে শরীরের শেষ রক্ত বিন্দু দিয়ে হলেও প্রতিরোধ করবো। খুনী মোশতাককে প্রতিহত করে ১৮ মাস জেলে ছিলাম। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চেয়েছিলেন এই দেশকে স্বাধীন করে সোনার বাংলা গড়ে তুলতে, কিন্তু খুনীরা তা হতে দেয়নি। বঙ্গবন্ধুকে খুন করে তারা চেয়েছিল এই দেশকে ধ্বংস করে দিতে। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীর পিতার সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। আজ বিশ্ব দরবারে তার সুযোগ্য নেতৃত্বের কারণে স্বাধীন বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। স্বাধীনতা বিরোধীদের পরাজিত করে এই দেশ স্বাধীন করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, হৃদয়ে একাত্তর ফাউন্ডেশন আজ আমাকে যে সম্মাননা দিয়েছেন এই সম্মান শুধু আমার নয়, এই সম্মান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে সম্মান দেওয়া হয়েছে। হৃদয়ে একাত্তর নামটি শুনলে স্বাধীনতার কথা মনে পড়ে যায়। হৃদয়ে একাত্তর ফাউন্ডেশনের অগ্রযাত্রা দীর্ঘজীবী হোক। ফাউন্ডেশনের যেকোন উন্নয়ন কর্মকান্ডে আমার সার্বিক সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় নগরীর দরগাগেইটস্থ কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের হলরুমে পঁচাত্তরের প্রতিরোধ যোদ্ধা এবং সিলেটে খুনী খন্দকার মোশতাককে প্রতিহত করার অন্যতম নায়ক জাতীয় নেতা এ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ এর সম্মানে হৃদয়ে একাত্তর ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ আয়োজিত সম্মাননা স্মারক অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

সংগঠনের চেয়ারম্যান ইব্রাহীম আহমেদ জেসির সভাপতিত্বে ও সিলেট জেলার সাবেক সদস্য জাহেদ জায়গীরদার এর পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সাবেক সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও সিলেট ল’ কলেজের সাবেক ভিপি এডভোকেট শামছুল ইসলাম, এডিশনাল পিপি মাশুক আহমদ, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির বিশ্ব বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মাছুম বিল্লাহ চৌধুরী।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট পলাশ চক্রবর্তী, এডভোকেট টিপু আহমদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা শাকিল রহমান, মহানগর ছাত্রলীগ নেতা ফুয়াদ আহমদ, সৈয়দ এমদাদুল হক ফাহিম, ওয়াসিম আহমদ, মিকদাদ আহমেদ চৌধুরী, সায়মন আহমদ, রুমান আহমদ ভূইয়া, আবিদ, জিসান, ফাহিম, নাঈম, আলমগীর, রাইয়ান, জেলা ছাত্রলীগ নেতা ডালিম চৌধুরী ইব্রাহীম আহমেদ, সুলতান আহদম, ছাত্রলীগ নেতা মামুন চৌধুরী, রুবেল আহমদ, শান্ত মল্লিক, দেলোয়ার হোসেন, এ্যাড একরামুল হাসান শিরু প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াত করেন তাহমিম আহমদ শাওন। অতিথিদের ফুল দিয়ে বরণ করেন হাসান আল মামুন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৪৫ বার

Share Button

Callender

February 2024
M T W T F S S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
26272829