শিরোনামঃ-

» মার্কিন যুক্তরাস্ট্রে ৩ কোটি ৩০ লাখ মানুষ কর্মহীন

প্রকাশিত: ০৯. মে. ২০২০ | শনিবার

জনবল সংকটে শ্রমবিভাগ, হতাশায় আবেদনকারীরা

নিউইয়র্ক থেকে এমদাদ চৌধুরী দীপুঃ
মার্কিন শ্রম দপ্তরের সাম্প্রতিক রিপোর্টে জানানো হয়েছে, করোনা ভাইরাস মহামারির মধ্যে ৩ কোটি ৩০ লাখ ৫০ হাজার আমেরিকান বেকারত্ব ভাতার জন্য আবেদন করেছেন। এর মধ্যে নিউ ইয়র্কের ১৬ লাখ আবেদনকারী রয়েছেন।

নিউইয়র্ক শ্রম বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত রাজ্য সরকার ৫ পয়েন্ট ৮ বিলিয়ন বরাদ্দ করেছে। শ্রম বিভাগ জানায় ২০২০ সালের গত দু’মাসের মধ্যেই ২০১৯-এর প্রায় ৩ গুণ বেশি বেকারত্বের সুবিধা প্রদান করেছে রাজ্য।

ডিপার্টমেন্ট অফ লেবার-এর কমিশনার জানিয়েছেন, ২০১৯-এ আমরা পুরো বছরে ২, পয়েন্ট ১৪ বিলিয়ন ডলার পরিশোধ করেছিলাম।

এদিকে নিউইয়র্ক রাজ্যের শ্রম দফতর থেকে প্রত্যাশিত সাহায্যের অভাবে নিউ ইয়র্কের বাসিন্দারা হতাশ হয়ে পড়েছেন।

অনেকেই অভিযোগ করছেন, অনুমোদন পাওয়ার পর তাদের সুবিধা পাননি, বলা হচ্ছে প্রক্রিয়া শেষ করতে শ্রম বিভাগ তাদের কল করবে কিন্তু অপেক্ষার পর কোন কল না পেয়ে আবেদনকারীরা বিভ্রান্তির মধ্যে রয়েছেন এবং অনেকের আবেদন অসংখ্য সপ্তাহ ধরে ঝুলে আছে।

যুক্তরাষ্ট্র ফেডারেল আইন অনুযায়ী বেকারত্ব ভাতা পাওয়ার জন্য প্রত্যেক সপ্তাহে আবেদনকারীর ভাতা সুবিধার জন্য সংশ্লিস্টদের কিছু করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

শ্রম বিভাগের নিউইয়র্ক রাজ্যে ৯০ হাজার আবেদন সার্টিফিকেশন শেষ করায় সাপ্তাহিত ভাতা পাচ্ছেন।

৪ লাখ ৭০ হাজার এর বেশী বাসিন্দা সার্টিফিকেশন নিস্পত্তি না হওয়ার কারনে অর্থ পাচ্ছন না। গত মে কমিশনার রেনারডন ঘোষনা করেন।

আবেদনকারীদেও সেবার জন্য শ্রম বিভাগ উদ্যোগ নিয়েছে। শ্রম বিভাগ ফোন কলের পাশাপাশি এখন অনলাইনে আবেদন এবং সার্টিফিকেশন গ্রহন করবে।

গত দুই মাসে আবেদনের বন্যা বয়ে গেছে শ্রমবিভাগে। কর্মহীনের সংখ্যা আরো কত বাড়বে এ ব্যাপারে বলতে পারছেন না সংশ্লিস্টরা।

আমেরিকার এই নাজুক অবস্থাকে তুলনা করা হচ্ছে ১৯৪৮ সালের নাজুক অবস্থার সাথে।

ফক্স নিউজের তথ্যমতে আড়াই কোটি আবেদন শুধু বেসরকারী সেক্টরের বেকারদের সংখ্যা। যুক্তরাস্ট্রের শ্রম বিভাগ বৃহস্পতিবার (৭ মে) জানিয়েছে, মার্কিন কর্মীজীবীদের উপর করোনাভাইরাস মহামারী দ্বারা আক্রান্তদের কর্মহীনতা অব্যাহত আছে, একই সাথে অর্থনৈতিক নাজুক অবস্থার অবনতি অব্যাহত রয়েছে।

এর আগে ২ কোটি ২০ লাখ কর্মহীন বেকার ভাতার জন্য আবেদন করেছিলেন। নতুন করে ১ কোটি ১০ লাখ জমা পড়ছে শ্রম দপ্তারে। এই আবেদনের ফলে হিমশিম খাচ্ছে শ্রমবিভাগ।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪৫৪ বার

Share Button

Callender

June 2024
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930