শিরোনামঃ-

» যুক্তরাষ্ট্রে করোনা পরিস্থিতি এখনো নিয়ন্ত্রনে আসেনি

প্রকাশিত: ২৯. এপ্রিল. ২০২০ | বুধবার

নিউইয়র্ক থেকে এমদাদ চৌধুরী দীপুঃ
যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ায় লকডাউন তুলে দেয়া হয়েছে। আজ বুধবার (২৯ এপ্রিল) ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে লকডাউন তুলে দেয়ার কথা। জর্জিয়ার লকডাউন তুলে দেয়া নিয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অসন্তোষ থাকলেও অনুমতি রয়েছে ফ্লোরিডার লকডাউন তুলে দেয়ার ব্যাপারে।

মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) নিউইয়র্ক সময় রাত ১টা ৩০ মিনিটে এবং বুধবার (২৯ এপ্রিল) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন নতুন করে ২৬ হাজারের উপরে মানুষ। এর বিপরীতে সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ২শ জন। আবারো বেড়েছে রাজ্যে রাজ্যে মৃত্যুর মিছিল। নিয়ন্ত্রন এর বাইরে সামগ্রিক করোনা পরিস্থিতি। দৃশ্যমান নয় করোনা নামক সুড়ঙ্গের ওপর প্রান্ত।

এদিকে নিউইয়র্ক এর কুইন্স এলাকায় মঙ্গলবারে ঘুরে দেখা গেছে রাস্তায় নেমে এসেছেন বিপুল সংখ্যক মানুষ। লকডাউন তুলে নেয়ার ঘোষনা না থাকলেও মানুষ ঘর থেকে বেরিয় আসার প্রবনতা লক্ষ্য করা গেছে। জেকসন হাইটস রোজভেল্ট এভিনিউ এর বিভিন্ন অংশে দেখা গেছে মানুষের ভিড়।

এছাড়া রোজাকে সামনে রেখে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বাংলাদেশীদের উপস্থিতি লক্ষনীয় ছিল বাংলাদেশীদের জনপদে।

একদিনে মৃত্যু আবার বেড়েছে ২৪ ঘন্টায় ২ হাজার ৪৭০ জন, গতকাল যা ছিল ১ হাজার ৩৯০ জনে।

নিউইয়র্কে একদিনে মারা গেছেন ৫২৭ জন। উন্নতির ধারায় নেই যুক্তরাস্ট্রের সামগ্রিক করোনা পরিস্থিতি।

এসব তথ্য বৈশ্বিক তথ্য বাতায়ন ওয়াল্ডোমেটার থেকে পাওয়া গেছে।

অঙ্গরাজ্য নিউইয়র্ক নিয়ে যে উদ্বেগ ছিল সেটি কমে এসেছে ক্রমাগত উন্নতির ফলে। নিউইয়র্কে একদিনে মৃত্যু এখন ৫২১ জন। এক সপ্তাহ আগে একদিনে শনাক্ত হতো ১০ হাজারের উপরে আর এখন চার হাজার।

মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) নিউইয়র্ক সময় রাত ১টা ৩০ মিনিটে এবং বুধবার (২৯ এপ্রিল) যুক্তরাস্ট্রে করোনা থেকে মুক্তি পেয়েছেন ৩ হাজারের উপরে মানুষ।

একদিনে শনাক্ত হওয়ার সংখ্যা প্রায় ২৬ হাজার।

একদিনে সুস্থ হওয়া এবং শনাক্ত হওয়ার মধ্যে আবার বিরাট ফারাক। মৃত্যু আবার বেড়েছে ২৪ ঘন্টায় ২ হাজার ৪৭০ জন। নিউইয়র্কে একদিনে মারা গেছেন ৫২১ জন। যুক্তরাস্ট্রের সামগ্রিক করোনা পরিস্থিতির আবার অবনতি হয়েছে।

এসব তথ্য বৈশ্বিক তথ্যবাতায়ন ওয়াল্ডোমেটার থেকে পাওয়া গেছে। এই ওয়েবপেইজে ক্যালিফোর্নিয়ায় নতুন করে ৬ জনের মারা যাওয়ার তথ্য দেয়া হয়েছে।

১০ লাখ ৩৫ হাজারের উপরে করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে যুক্তরাস্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যসহ কিছু বড় শহর, কেন্দ্রীয় কারাগার, রণতরী, আইল্যান্ড গুলোতে।

এর বিপরীতে প্রায় এক লাখ ৪২ হাজার মানুষের সুস্থতায় স্বস্থিকর পরিবেশ মুক্তিকামী উত্তর আমেরিকাবাসীর মাঝে।

গত এক সপ্তাহে সুস্থ হয়েছেন ৭৩ হাজার এর উপরে মানুষ। অঙ্গরাজ্য নিউইয়র্ক নিয়ে যে উদ্বেগ ছিল সেটি কমে এসেছে ক্রমাগত উন্নতির ফলে।

এক সপ্তাহ আগে একদিনে শনাক্ত হতো ১০ হাজারের উপরে আর এখন চার হাজার। যুক্তরাষ্ট্রে এখন মৃত্যুর সংখ্যা ৫৯ হাজার ২৬৬ জন। নিউইয়র্কে মোট মৃত্যু ২৩ হাজার ১৪৪ জন।

শীর্ষ রাজ্যগুলোর চিত্র হচ্ছে, নিউজার্সীতে শনাক্ত ১ লাখ ১৪ হাজার এর উপরে, মৃত্যু ৬ হাজার ৪৪২ জন, সুস্থ মাত্র ১৫শ।

মেসাচুসেট অঙ্গরাজ্য যেখানে শনাক্ত রোগী প্রায় ৫৮ হাজার, মারা গেছেন ৩ হাজার ১৫৩ জন। মিশিগানে মারা গেছেন ৩ হাজার ৫৬৭ জন, এ যাবত শনাক্ত ৩৯ হাজারের উপরে, এই রাজ্যে সুস্থতা নিয়ে রয়েছে উদ্বেগ আর উৎকন্ঠা।

ইলিনইস অঙ্গরাজ্যে মৃত্যু ২ হাজার ১২৫ জনের, শনাক্ত হয়েছেন প্রায় ৪৮ হাজার, সুস্থতার তথ্য নেই।

৪৬ হাজারের উপরে শনাক্ত রোগী এখন ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে, মৃত্যু ১ হাজার ৮৬২ জনের, সুস্থতা ৩ হাজার জনের। ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে মৃত্যুর খবর ১ হাজার ১৭১ জনের, শনাক্ত হয়েছেন ৩৩ হাজারের উপরে।

পেনসেলভেনিয়ায় শনাক্ত প্রায় ৪৫ হাজার, মারা গেছেন ২ হাজার ৬০ জন, সুস্থ হওয়ার তথ্য নেই।

লুসিয়ানায় মারা গেছেন ১ হাজার ৮০১ জন, শনাক্ত ২৭ হাজার এর উপরে, সুস্থতার তথ্য নেই।

কানেকটিকায় শনাক্ত ২৬ হাজারের উপরে, মৃত্যু ২ হাজার ৮৯ জনের, সুস্থতা ২শ জনের উপরে।

টেক্সাসে মৃত্যু ৬৯০ জনের,শনাক্ত রোগী ২৬ হাজার প্রায়। সুস্থতার খবর আছে প্রায় ১৮শ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ করোনার কারনে এ পর্যন্ত স্বপ্নের দেশে দুইশো বাংলাদেশীর সমাধি হয়েছে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৭৯ বার

Share Button

Callender

March 2024
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031