শিরোনামঃ-

» উন্নতির দিকে নিউইয়র্কের করোনা পরিস্থিতি

প্রকাশিত: ২১. এপ্রিল. ২০২০ | মঙ্গলবার

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প, নিউইয়র্ক গভর্নর কোমো টেস্ট, টেস্ট, টেস্ট বলে চিৎকার করছেন কেন?
উন্নতির দিকে করোনা পরিস্থিতি

নিউইয়র্ক থেকে এমদাদ চৌধুরী দীপুঃ

(২০ এপ্রিল ২০২০)
যুক্তরাস্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং নিউইয়র্ক এর গভর্নর এন্ড্রো কোমো দুজনই চিৎকার করছেন টেস্ট টেস্ট টেস্ট বলে। কিন্তু কেন? প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কৃতিত্ব নিতে চান এই বলে যে যুক্তরাস্ট্রে করোনার টেস্ট পর্যাপ্ত হয়েছে এবং তিনি পরিস্থিতি মোকাবেলায় সফল।

আর নিউইয়র্ক এর গভর্নর মনে করেন টেস্ট সন্তোষজনক নয়, এখনো বাফেলো সহ ৬২ কাউন্টিতে সন্তোষজনক টেস্ট করা যায়নি, করোনা পজেটিভ টেস্ট এর পাশাপাশি এন্টিবডি টেস্ট এর উপর গুরুত্ব দিয়েছেন তিনি।

এদিকে করোনা ইস্যুতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এর সাথে নেই তার দলের প্রভাবশালী গভর্নর মেরিহোগান, মেরিল্যান্ড অঙ্গরাজ্যের এই গভর্নর ৫ লাখ টেস্টিং কীট আমদানী করছেন।

৫০ অঙ্গরাজ্যের গভর্নরদের এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট মেরিহোগান ট্রাম্পের ভুমিকাকে সমর্থন না করে করোনা পরিস্থিতি যুক্তরাস্ট্রজুড়ে নিয়ন্ত্রনের উপর গুরুত্ব দিচ্ছেন।

যুক্তরাস্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের গভর্নররা মনে করেন করোনা ভাইরাস বিষয় নয় ট্রাম্প এই ইস্যুকে তার নির্বাচনী ইস্যু হিসেবে ব্যবহারে মরিয়া হয়ে উঠেছেন, তিনি তার সাফল্যগাথা তুলে ধরার চেস্টা করছেন।

এদিকে যুক্তরাস্ট্রের করোনা পরিস্থিতি উন্নতির দিকে, কমেছে মৃত্যু। আক্রান্ত সংখ্যা বাড়লেও এটিকে যৌক্তিক মনে করছেন সংশ্লিস্টরা, কারন এখন টেস্টিংকে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে সবখানে।

এদিকে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা কমেছে গতকালের চেয়ে। গত ২৪ ঘন্টায় যুক্তরাস্ট্রে মৃত্যু ১ হাজার ৯৮৭ জনের, মোট সংখ্যা দাড়িয়েছে ৪২ হাজার ৪৮৩ জনে।

আক্রান্ত মোট ৭ লাখ ৯২ হাজারের উপরে, আর মোট সুস্থ প্রায় ৭২ হাজার।

বৈশ্বিক তথ্যবাতায়ন ওয়ার্ল্ডোমেটারের তথ্য মতে নিউইয়র্কে ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ৬৩১ জন।

এদিকে নিউইয়র্কে সনাক্ত হওয়া রোগী এখন ২ লাখ ৫২ হাজারের উপরে। মোট মৃত্যু ১৮ হাজার ৯২৯ জন।

করোনা পরিস্থিতি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কিভাবে মোকাবেলা করছেন জানতে চেয়েছিলাম জাস্ট নিউজের সম্পাদক এবং হোয়াইট হাউস করেসপন্ডেন্ট মুশফিকুল ফজল আনসারীর কাছে।

করোনা পরিস্থিতিতে ট্রাম্প এর ভুমিকা তুলে ধরে তিনি বলেন প্রেসিডেন্ট এর কাছে এটি আগামী ৩ নভেম্বরের নির্বাচনী ইস্যু।

তিনি নির্বাচনকে বেশী গুরুত্ব দিচ্ছেন এর বিপরীতে পূর্ব পশ্চিম উপকুলের গভর্নর এবং ৫০টি অঙ্গরাজ্যের গভর্নর গুরুত্ব দিচ্ছেন যুক্তরাস্ট্রকে নিরাপদকরা।

মহামরী থেকে মানুষকে বাচানো, রোগী সনাক্ত সহ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার জন্য। ট্রম্প যে নির্বাচনী মিশন নিয়ে এগুচ্ছেন এটা সবাই বুঝতে পারছেন এবং ট্রাম্প নিজে সেটা বার বার মনে করিয়ে দিচ্ছেন।

তবে ট্রাম্প তার দলে এবং বিরোধীদরের সহযোগীতা পাচ্ছেন না বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ট্রাম্প এর তিনধাপে তড়িগড়ি করে যুক্তরাস্ট্র রি-ওপেন এর ঘোষনা বাস্তবায়ন হবেনা বলে মনে করেন হোয়াইটহাউজ করেসপন্ডেন্ট এবং আমেরিকার, অর্থনীতি, কুটনীতি সহ রাজনীতির বিশ্লেষক বিশিস্ট সাংবাদিক মুশফিকুল ফজল আনসারী।

নিয়মিত প্রেসব্রিফিং এ সোমবার (২০ এপ্রিল) নিউইয়র্ক এর গভর্নর কুমো বলেছেন করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে ধীরে ধীরে লকডাউন তুলে দেয়া হবে।

কেন্দ্রীয় সরকারের সহযোগীতা প্রসঙ্গে কুমো বলেন রাজ্য সরকার সন্তোষজনক সহযোগীতা পেতে হবে এই পরিস্থিত মোকাবেলার জন্য।

কুমোর সংবাদ সম্মেলন নিয়ে কথা বলেছিলাম সাপ্তাহিক পরিচয় পত্রিকার সম্পাদক নাজমুল আহসানের সাথে।

তিনি বলেন কুমো অনেক সীমাবদ্ধতার মধ্যে আছেন এর মধ্যে টেস্টিং কীট একটি, এই বাস্তবতায় কুমো দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন টেস্টিং ল্যাবের কাজ পরিচালনায় কেমিক্যালের জন্য চীনের উপর আমাদের ভরসা করতে হয় এটি হতাশার বিষয়।

এ ছাড়া নাজমুল আহসান বলেন এক প্রশ্নের জবাবে কুমো বলেছেন ব্ল্যাক, ব্রাউন পিপল এই মহামারীতে বেশী কস্ট পেয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আলোচনার সময় নাজমুল আহসান বলেন কুমো এন্টিবডি টেস্ট বিষয়ে যেটি উল্লেখ করেছেন এখাণে লক্ষনীয় বিষয় আছে, আর সেটি হলো যারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন শুধু তাদের এন্টিবডি টেস্ট করা যাবে এবং যারা বিভিন্ন প্রতিষ্টানে ফ্রন্ট ডেস্কে কাজ করে এমন নাগরিক হতে হবে।

কুমোর সংবাদ সম্মেলনে কী বার্তা রয়েছে জানতে চাইলে সিনিয়র সাংবাদিক নাজমুল আহসান বলেন- যে সব হাসপাতালে সাধারন সার্জারী বন্ধ আছে সে সব হাসপাতালে আবারো সার্জারী শুরু হবে কীনা এ ব্যাপারে মঙ্গলবারে সিদ্বান্ত জানা যাবে।

উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবদানকলে এক প্রশ্নের জবাবে কুমো বলেন ৭০০ স্কুল খোলে দেয়ার কোন সম্ভাবনা নাই।

এছাড়া স্কুল আবার খোলার বিষয়ে বিভিন্ন পক্ষের সাথে কথা বলতে হবে। নার্সিংহোম সমূহের সমস্যা প্রসঙ্গে গভর্নর বলেন- সার্সিংহোমে টেস্ট এর ব্যবস্থা করা হবে মনিটরিং বাড়ানো হবে।

নিউইয়র্ক এর করোনা পরিস্থিতি চুড়ান্ত রুপ নিয়েছে এটি ধীরে ধীরে কমতে থাকলে নিউইয়র্ক খোলে দেয়া হবে।

যুক্তরাস্ট্রে করোনা পরিস্থিতি রয়েছে চার ধরনের লেবেলে। এই বাস্তবতায় গভর্নররা লকডাউন তুলে দেয়ার পক্ষে নয়।

৫০ রাজ্যের চিত্র এ রকম,অন্তত ৮টি রাজ্যে করোনার বিস্তার সহনীয় পর্যায়ে, ২২টি রাজ্যে বড় ধরনের কিছু এখনো হয় নাই। ১০টি রাজ্যে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা, ৩ হাজার থেকে ৫ হাজার।

আক্রান্ত ৫ হাজার থেকে ১০ হাজার এমন রাজ্য আছে আরো ১০টি। আর উদ্বেগজনক অবস্থা এখন ১০টি রাজ্যে যেখানে আক্রান্ত ১০ হাজার থেকে ২ লাখ ৫২ হাজারের উপরে।

এই বিবেচনায় প্রেসিডেন্ট তিনধাপে আবার খোলে দিতে চান যুক্তরাস্ট্রকে। তার এই এই ঘোষনার পক্ষে মিশিগান সহ বিভিন্ন রাজ্যে বিক্ষোভ করছেন রিপাবলিকান সমর্থকরা।

এবার বাড়ি বাড়ি গিয়ে করোনা পজেটিভ পরীক্ষা, করোনার এন্টিবডি টেস্ট সহ বিভিন্ন উদ্যোগের কথা বলছেন রাজ্য গভর্নররা।

নিউজার্সীতে ১৭টি মৃতদেহ বিভিন্ন নার্সিংহোম থেকে উদ্বার করার খবর প্রচার করছে এখানকার গণমাধ্যম।

অন্যান্য অঙ্গরাজ্যে নার্সিংহোম, ওল্ডকেয়ারে বয়স্ক মানুষের মৃত্যুর খবর পাওয়া যাচ্ছে।

গত একমাসে যুক্তরাস্ট্রে ২ কোটি ২০ লাখ মানুষ এর আনএমপ্লয়মেন্ট আবেদন জমা হয়েছে লেবার ডিপার্টমেন্ট অফিসে।

নিউইয়র্ক সহ আরো ৫টি রাজ্যে এ পর্যন্ত অন্তত ১৭০ জন এর উপরে বাংলাদেশী মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

সামগ্রিক করোনা চিত্র উন্নতির দিকে। শীর্ষ করোনা আক্রান্ত রাজ্যের মধ্যে নিউজার্সীতে অবনতি অব্যাহত আছে মোট আক্রান্ত এখন ৮৯ হাজার প্রায় নতুন মৃত্যু ১৭৫ জন, মোট মৃত্যু ৪ হাজার ৩৭৭ জনের।

মেসাজুসেট রাজ্যে আক্রান্ত ৩৯ হাজারের উপরে, মারা গেছেন ১ হাজার ৮০৯ জন,নতুন মৃত্যু ১০৩ জনের। পেনসেলভিনায় আক্রান্ত প্রায় ৩৪হাজার,মারা গেছেন ১ হাজার ৩৪৮ জন, নতুন মৃত্যু ১১১ জন, মিশিগানে আক্রান্ত ৩২ হাজারের উপরে, মৃত্যু ২ হাজার ৪৬৮ জন, নতুন করে মারা গেছেন ৭৭ জন। কানেকটিকা অঙ্গরাজ্যে বেড়েছে মৃত্যু, একদিনে মারা গেছেন ২০৪ জন, আক্রান্ত ১ হাজার ৮৫৩ জন, মোট আক্রান্ত প্রায় ২০ হাজার। জর্জিয়া এবং মেরিল্যান্ডে আকস্মিকভাবে মৃত্যু বেড়েছে, দুই রাজ্যে মারা গেছেন নতুন করে যথাক্রমে জর্জিয়ায় ৯৪ জন, মেরিল্যান্ডে ৯৬ জন, জর্জিয়ায় মোট আক্রান্ত ১৯ হাজার এর উপরে মোট মৃত্যু ৭৭৫ জন,আর মেরিল্যান্ডে মোট আক্রান্ত ১৪ হাজারের উপরে, মোট মৃত্যু ৫৮২ জন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪১৫ বার

Share Button

Callender

March 2024
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031