শিরোনামঃ-

» যুক্তরাস্ট্রে নিয়ন্ত্রণহীন করোনা পরিস্থিতি; ৩ মাসে লোকসান ৭ বিলিয়ন ডলার, দেউলিয়া হয়ে যেতে পারে নিউইয়র্ক

প্রকাশিত: ১৯. এপ্রিল. ২০২০ | রবিবার

নিউইয়র্ক থেকে এমদাদ চৌধুরী দীপুঃ

(১৮ এপ্রিল ২০২০)

ক্রমেই বাড়ছে লোকসান। দেউলিয়া হওয়ার পথে যুক্তরাস্ট্রের ফুসফুসখ্যাত ওয়ার্ল্ড ক্যাপিটাল নিউইয়র্ক রাজ্য।

কেন্দ্রীয় সরকারের সাহায্য না পেলে তিন মাসে যে লোকসান হয়েছে আগামীর লোকসান মিলে এক ভয়াবহ পরিস্থিতি অপেক্ষা করছে ৯০ লাখ মানুষের শহর নিউইয়র্কবাসীর জন্য।

আজো নিয়ন্ত্রনের বাইরে যুক্তরাস্ট্রে করোনা পরিস্থিতি। মৃত্যু কমলেও বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। এক দিনে আক্রান্ত বেড়েছে ২৯ হাজার আর মৃত্যু বেড়েছে ১৮৬০ জন। যুক্তরাস্টে মোট আক্রান্ত ৭ লাখ ৩৮ হাজার ৭৯২ জন। আরা মৃতের সংখ্যা ৩৯ হাজার ১৪ জন।

এদিকে নিউইয়র্কে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৭ হাজারের উপরে, কমেছে মারা যাওয়ার সংখ্যা।

২৪ ঘন্টায় ৫৪০ জনের মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এসব তথ্য ওয়াল্ডোমেটারের। এই সংস্হার তথ্যমতে আলাচনায় থাকা ৫ রাজ্যে আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যা যথাক্রমে নিউজার্সী সনাক্ত ৮১ হাজারের উপরে, মারা গেছেন ৪০৭০ জন, মেসাজুসেট অঙ্গরাজ্যে সনাক্ত হয়েছে ৩৬ হাজারের উপরে, মারা গেছেন ১৫৬০ জন, পেনসেলভেনিয়ায় সনাক্ত হয়েছেন প্রায় ৩২ হাজার, আর মারা গেছেন ১১০২ জন, মিশিগানে সনাক্ত রোগী প্রায় ৩১ হাজার, মৃত্যু ২৩০৮ জন, ক্যালিফোনিয়ায় আক্রান্ত প্রায় ৩১ হাজার, আর মৃত্যু ১১৪৭ জন।

যুক্তরাস্ট্রে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৬৮ হাজারের উপরে, একদিনে ৮ হাজার করোনা রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

এদিকে এসব তথ্যের বাইরে মৃত্যু এবং আরোগ্য হওয়ার খবর রয়েছে যুক্রাস্ট্রের নাগরিকদের কাছে। তবে নিউইয়র্ক এর গভর্নর বলেছেন যারা করোনা পজেটিভ এর তথ্য গোপন করবেন তাদেরকে জরিমানা করা হবে।

যুক্তরাস্ট্রে করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকে রাস্ট্রীয় এবং রাজ্যসরকার সহ সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন তথ্য নিয়ে বিশ্লেষণ করে আসছেন নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক মনোয়ারুল ইসলাম।

জানতে চেয়েছিলাম নিউইয়র্কে এই মহামারী আর্থিকভাবে কী প্রভাব ফেলতে পারে।

এ বিষয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে এই সিনিয়র সাংবাদিক দিয়েছেন উদ্বেগজনক তথ্য।

তিনি মনে করেন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ডেমক্রেটদের একটা শিক্ষা দেয়ার জেদ ভুলতে পারছেননা এই বৈশ্বিক মহামরীতে।

একটা দুরত্ব স্পস্ট নিউইয়র্ক এর গভর্নর এন্ড্রো কোমো এবংর্ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মধ্যে।

অভিযোগ পাল্টা অভিযোগ, বিভিন্ন কথা, মস্তব্য, টুইট এর মাধ্যমে এসবের প্রমান পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন ৩ মাসে যে ৭ বিলিয়ন ডলার ঘাটতিতে রয়েছে নিউইয়র্ক। এর ফলে ব্যাংকগুলো দেউলিয়া হওয়ার আশংকা রয়েছে।

ফেডারেল এর সাহায্য যদি স্টেইট না পায় তাহলে একটি অনিবার্য মহামন্ধার মুখোমুখী হবে নিউইয়র্ক রাজ্য সরকার।

গতকালও বাংলাদেশীদের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তবে বিভিন্ন সংগঠন এগিয়ে আসার কারনে কবর,ফিউনারেল, জানাজা এসব নিয়ে কাউকে সমস্যায় পড়তে হচ্ছেনা।

এদিকে যুক্তরাস্ট্রের ঘণমাধ্যমে গুরাত্ব পাচ্ছে তিন ধাপে উত্তর আমেরিকাকে আবার খোলে দেয়ার ভাবনা। যদিও প্রেসিডেন্টর এর এই ভাবনাকে বাস্তবতা বিবর্জিত মনে করেন রাজনৈতিক নেতারা সহ বিভিন্ন স্টেইটের গভর্নররা।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৯১৪ বার

Share Button

Callender

March 2024
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031