শিরোনামঃ-

» ৩০ সেকেন্ডের মধ্যেই মিলবে বেতন-ভাতা-পেনশন

প্রকাশিত: ০৯. নভেম্বর. ২০১৯ | শনিবার

৬ মাসের মধ্যে সব স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে ইএফটি

সিলেট বাংলা নিউজ ডেস্কঃ
ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফারের (ইএফটি) মাধ্যমে মাত্র ৩০ সেকেন্ডে মিলবে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা। আগামী ৬ মাসের মধ্যে স্বায়ত্তশাসিত সকল প্রতিষ্ঠানে এই ইএফটি চালু করা হবে। এমনকি কোন কর্মকর্তা-কর্মচারী অবসর গ্রহণ করলে পরদিনই তার একাউন্টে স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলে যাবে অবসরভাতা (পেনশন)।
বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ ভবনে এক অনুষ্ঠানে ইএফটি কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান ও অতিরিক্ত সচিব মো. রাশিদুল ইসলাম।
এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- কর্মসূচি পরিচালক, সরকারি ব্যয় ব্যবস্থাপনা শক্তিশালীকরণ কর্মসূচি ও অর্থ বিভাগের (বাজেট-১) অতিরিক্ত সচিব মো. হাবিবুর রহমান।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের সদস্য (প্রশাসন ও অর্থ) ও যুগ্ম-সচিব ড. মো. মইনুল হক আনছারী।

ইএফটি পদ্ধতি চালু করার ফলে জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতনভাতা, গৃহঋণ, পেনশন প্রদানের পুরো প্রক্রিয়াটিই হবে সহজ, স্বচ্ছ ও দ্রুত। দূর হবে প্রতিষ্ঠানগুলোর সব ধরনের আর্থিক অনিয়ম। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ইনক্রিমেন্ট, অর্জিত ছুটি, ভ্রমণ তথ্য, সার্ভিস রেকর্ড অর্থাত্ চাকরিতে যোগদানের পর থেকে সব ধরনের তথ্য ইএফটি ডাটাবেজে থাকবে। এর ফলে মুহূর্তেই মিলবে সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর পাওনাদি সহ অবসরে যাওয়ার সব তথ্য। এমনকি জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী অবসরে যাওয়ার একদিনের মধ্যে মিলবে পেনশন সুবিধা।

২০১৮-এর অক্টোবরে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোকে ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার পদ্ধতি চালু করতে একটি চিঠি দেয় অর্থ মন্ত্রণালয়ের বাজেট অনুবিভাগ। এরপর প্রথম কোনো স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান হিসেবে জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ ইএফটি পদ্ধতি চালু করতে সক্ষম হলো। বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডসহ আরো চারটি প্রতিষ্ঠান এ কার্যক্রম শুরু করলেও তারা এখন পর্যন্ত এ কার্যক্রম সফলভাবে সম্পন্ন করতে পারেনি।

অনুষ্ঠানে অর্থবিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. হাবিবুর রহমান বলেন- আগামী ৬ মাসের মধ্যে রাষ্ট্রের সকল স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে ইএফটি পদ্ধতি চালু করা হবে। জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ এখন থেকে কেরানিনির্ভর হিসাব ব্যবস্থা থেকে বেরিয়ে প্রযুক্তিনির্ভর হলো। অতিরিক্ত সচিব মো. রাশিদুল ইসলাম বলেন, পুরো বিষয়টি অটোমেশনে আনা ছিল অত্যন্ত জটিল কাজ। আমরা নিবিড় তদারকির মাধ্যমে সেই জটিল কাজটি স্বল্পসময়ে সমাধান করে এখানে ৩২১ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীর চাকরিকালীন সকল সুবিধা প্রদানে ইএফটি পদ্ধতি চালু করতে সক্ষম হয়েছি।

এ সময় জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ইএফটি পদ্ধতির শুভ উদ্বোধন বাটনে চাপ দিলেই সারাদেশে জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষে চাকরিরত কর্মকর্তা-কর্মচারীর অক্টোবরের বেতনভাতা তাদের স্ব স্ব একাউন্টে পৌঁছে যায়।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৪৫ বার

Share Button

Callender

July 2020
M T W T F S S
« Jun    
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031