শিরোনামঃ-

» প্রতিশ্রুতি দিয়ে তা রাখেননি কয়েস লোদী : সোহাদ রব চৌধুরী

প্রকাশিত: ১১. জুলাই. ২০১৮ | বুধবার

সিলেট বাংলা নিউজঃ আসন্ন সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী পুষ্টি ফুডস হাউজের মালিক সোহাদ রব চৌধুরী সম্প্রতি অভিযোগ করে বলেন- সদ্য সাবেক কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদী আমাকে যে কথা দিয়েছিলেন, প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তা তিনি রাখেননি বরং আমার সাথে প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করেছেন। এজন্যই আমি এবার ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি।

তিনি বুধবার (১১ জুলাই) সিলেট বাংলা নিউজ ডটকম’র প্রতিনিধির সাথে সাক্ষাৎকালে এসব অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন- ২০১৩ সালে অনুষ্ঠিত সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কয়েস লোদী আমাকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে, তিনি পরবর্তী নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না। তিনি মেয়র পদে নির্বাচন করবেন এবং আমাকে কাউন্সিলর পদে পরের নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিতে অনুমতি প্রদানপূর্বক নিজের সম্মতি ও সমর্থন দিয়েছেন। আসন্ন নির্বাচনে সহযোগিতা করবেন বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।

তাঁর প্রতিশ্রুতি মোতাবেক বিশেষ করে ২০১৩ সালের পর থেকে নিজেকে মানসিকভাবে প্রস্তুতি করে তুলি। প্রতিদিন প্রত্যেক পাড়া মহল্লায় গিয়ে মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে নিজের অবস্হান তুলে ধরি এবং সবার কাছে ভোট কামনা করি। ভোটাররাও আমাকে কথা দিয়েছেন, প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন।

IMG-20180710-WA0000জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাসে স্নাতকোত্তর সোহাদ রব চৌধুরী এলাকার বিভিন্ন সমস্যা দূরীকরণে এবং তাঁদেরকে সেবা ও সহযোগিতা করার লক্ষ্যে ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হয়েছেন।

তিনি স্বীকার করেন যে, অতীত সময়ে সদ্য সাবেক কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদী এলাকার উন্নয়নে ভালো ভালো কাজ করেছেন। কিন্তু এলাকার মানুষ এখন পরিবর্তন চায় নতুন নেতৃত্ব চায়। তাঁরা চায় অতীত এবং বর্তমানের কাজের তুলনা করতে।

এ ব্যাপারে সিলেট বাংলা নিউজ ডটকম’র প্রতিনিধি সাবেক কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদীর বক্তব্য নিতে তাঁর সাথে যোগাযোগ করলে তাঁকে ফোনে পাওয়া যায়নি।

কাউন্সিলর পদপ্রার্থী সোহাদ রব চৌধুরী এলাকার মানুষের কাছে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন যদি তিনি এ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন তবে তিনি এ ওয়ার্ডকে ডিজিটাল ওয়ার্ড করবেন। এ ওয়ার্ডকে একটি মডেল ওয়ার্ডে পরিণত করবেন।

এলাকায় বিদ্যমান পয়:নিস্কাশন ও ড্রেনেজ সমস্যার নিরসনকল্পে কাজ করবেন। বিশেষ করে এলাকার অনেক সরু রাস্তাকে প্রশস্হ করবেন। নর্দমা ও ময়লা আবর্জনায় ভরপুর মজুমদারি দীঘিকে সংস্কার করবেন। এলাকার যুব সমাজকে কারিগরী প্রশিক্ষণের মাধ্যমে মানবসম্পদে পরিণত করবেন।

সোহাদ রব চৌধুরী তাঁর নির্বাচনী ইশতেহারে এলাকাবাসীকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে, যদি তিনি নির্বাচিত হন তাহলে তিনি সিলেট সিটি কর্পোরেশন থেকে তাঁর প্রাপ্ত বেতন-ভাতার সাথে আরো কিছু অংশ যোগ করে এলাকায় অনেক সুবিধা বঞ্চিত ও অসহায় নারী ও শিশুর শিক্ষা এবং চিকিৎসা খাতে ব্যায় করবেন। বিধবা নারীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্হা করবেন। অনেক গরীব মা-বাবা তাঁদের মেয়ে বিয়ে দিতে পারছেন না, তাঁদেরকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিবেন।

তাই এলাকাবাসীর কাছে তাঁর বিণীত আরজ, তিনি এ এলাকারই সন্তান। দীর্ঘ ৫৫ বছরের অধিক কাল থেকে তাঁদের এ এলাকায় বসবাস। স্বাভাবিকভাবেই তিনি ওয়ার্ডবাসীর কাছে ভোট প্রত্যাশা করতে পারেন।

এবারে তাঁর নির্বাচনী প্রতীক ঠেলাগাড়ি। যোগ্যতার মাপকাটিতে ৩০ জুলাই নির্বাচনের দিন প্রত্যেকে ঠেলাগাড়ি মার্কায় ভোট দিয়ে ওয়ার্ডবাসী তাঁদের সেবক নির্বাচিত করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২০৫৩ বার

Share Button

Callender

August 2020
M T W T F S S
« Jul    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31