শিরোনামঃ-

» Stand against the Massacre of Myanmar

প্রকাশিত: ৩১. আগস্ট. ২০১৭ | বৃহস্পতিবার

নূরুল মুজাদ্দেদীঃ I have no any language to gain say. I am really a Muslim guider. I raped of Anson suchi to snatch with her If I became a scandal terror (If I were a terror) lastly I finished her burning by ashes after the raping of. I am stronger physically than also the males of Pakistani and African . ﭘﺪﺭ ﮔﻔﺘﺶ ﮐﻪ ﻓﺮﺯﻧﺪﺳﺖ ﻣﻄﻠﻮﺏ ﻭﻟﯽ ﻭﻗﺘﯽ ﮐﻪ ﻧﺒﻮﺩ ﻣﺮﺩ ﻣﻌﯿﻮﺏ ﮐﺴﯽ ﮐﻮ ﻣﺒﺘﺪﯼ ﺑﺎﺷﺪ ﺩﺭﯾﻦ ﮐﺎﺭ ﮔﺮ ﺁﯾﺪ ﻫﯿﭻ ﻓﺮﺯﻧﺪﺵ ﭘﺪﯾﺪﺍﺭ ﺷﻮﺩ ﻣﻌﯿﻮﺏ ﻭ ﭘﺲ ﻣﻔﻌﻮﻝ ﮔﺮﺩﺩ . (আমি মিয়ানমারের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী অংসান সূচির দৃষ্টি আকর্ষন করে বলছিঃ সূচি এভাবে তুমি আমেরিকার কথা শুনিয়া মুসলিমদের হত্যা করিওনা৷ তুমি যদি আমেরিকার আরাম পাইয়া আর একটি মুসলিম হত্যা কর, জেনে রাখ, আমেরিকার ষড়যেন্ত্রে তুমি, তোমার চৌদ্দ গোষ্ঠি ও মিয়ানমারের সব বৌদ্ধ বদমায়েশ জাতি একদিন মদন হবে৷ মুসলিমদের পবিত্র রক্তের বিনিময়ে অতি শীঘ্রই মিয়ানমারকে বিশ্বের ইতিহাস থেকে মুছে ফেলা হবে৷ তাছাড়া রোহিঙ্গা মুসলিম স্ট্যাট নামে নতুন রাষ্ট্রের জন্ম হবে৷ সূচি! তুমি মুসলমানের ওপর জুলুম করবে না কারণ, এ জুলুম-ই তোমার জন্য অন্ধকার হয়ে দাঁড়াবে৷)

(সূচি জেনে রাখ, তোমার নামের অর্থ খুবই খারাপ৷ চুদ শব্দ হতে সূচি শব্দের উৎপত্তি৷ উল্লেখিত শব্দটি সূচি শব্দের প্রতি শব্দ৷) 1971 সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় রোহিঙ্গাদের অবদান বাঙ্গালী জাতি কী অস্বীকার করতে পারবে? উত্তর মোটেই না, মুক্তিযুদ্ধের সময় রোহিঙ্গারাও আমাদের আশ্রয় দিয়েছিল, এ কথা বাংলাদেশী কোন সভ্য সমাজ অস্বীকার করতে পারবেনা৷

নিম্নে তা মুক্তিযুদ্ধের দলিলে প্রমানিতঃ আমরা শুধু শুনে এসেছি মুক্তিযুদ্ধে শরনার্থীদের শুধুমাত্র ভারতই আশ্রয় দিয়েছিল। কথাটা পুরোপুরি সত্য নয়, মুক্তিযুদ্ধের সময় বার্মাতেও বাংলাদেশের শরনার্থীরা আশ্রয় নিয়েছিল, আর তাঁরা আশ্রয় নিয়েছিল মুসলিম অধ্যুষিত রাখাইন প্রদেশেই।

বাংলাদেশের সাথে নিকটবর্তী দু’টি দেশের সীমানা আছেঃ (1) মিয়ানমার (2) ভারত৷ বাংলাদেশ হতে নাফ নদী অতিক্রম করে যেভাবে সহজেই মিয়ানমার আসা-যাওয়া করা যায় সেইভাবে কিন্তু ভারত যাওয়া যায় না৷

বাস্তবতায় প্রমানিত যে, 1971 ইং সালে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় বাঙ্গালী নির্যাতিত শরণার্থীদেরকে সর্বপ্রথম মিয়ানমারের আরাকান রাজ্যের রোহিঙ্গারাই আশ্রয় দিয়েছিল৷ এখন সময়ের দাবী, রোহিঙ্গাদের সেই মহতি ঋণ আমাদের পরিশোধ করা দরকার অন্যথায়, আমরা স্বাধীন বাঙ্গালী জাতি নামে বিশ্বের দরবারে হারামী জাত হিসেবে প্রমানিত হব৷ আমাদের বিবেক- বুদ্ধি এবং ইনসাফ থাকা দরকার৷

১৯৭১ সালের ১৮ই জুন অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম এই জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে বার্মার জনগন আর সরকারকে ধন্যবাদ জানান। (সুত্রঃ মুক্তিযুদ্ধের দলিলপত্র, ৩য় খণ্ড, পৃষ্ঠা ৫৩)৷

আমি মহান আল্লাহ ছাড়া কাউকে ভয় করিনা৷ মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রাখাইন রাজ্যে মুসলিম রোহিঙ্গাদের অন্তত ১০টি গ্রাম পুড়িয়ে দিয়েছে। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ) এই তথ্য জানিয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা ও অ্যাক্টিভিস্টরা দাবি করেছেন, গ্রামগুলোতে প্রবেশ করে সেনাবাহিনী নিরস্ত্র রোহিঙ্গাদের নির্বিচারে গুলি করেছে। ঘরবাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। সেনাদের গুলির শিকার হয়েছেন নারী, পুরুষ ও শিশুরা।

Make a unity all Muslim against the Jew and the Christian: Our spiritual power is the strongest than the weapons between Jew and the Christian. We are followers of Hajrat Omar Faruque and Hajrat Shere Qhuda Ali bless be upon them. Our heads are always strongest all over the country. We have attained a great victory in 1971 by powerful fighting. We are Muslim. Our have Islamic tradition and religious culture. I can refer the history in past time. We had attained victory in each fighting against disbelievers and scandal traitors. I submitted a precedent to the nation that is given below: Hajrat Khaja Mayinuddin Chisti Ajmiree (bless be upon him) had humiliated of Hindu king Pritiraj and the emperor of Awlia Hajrat Shah Jalal Sourawardi Yamoni (bless be upon him) had destroyed of Hindu king Goura Govinda by their spiritual power but not human created weapons and canon power. Why are We victimized to non believers day by day? It,s only reason ” We are fallen in wrong way anti Ahle sunnat wal jamawat which is declared as a divine party by Islamic Sharia. We must be tyrranized by Jew and Christian until Hajrat Isa Alayhis Salam and Hajrat Imam Mahdi Alayhis Salam come in this destructed world. Our must have humanity and responsibility to help our Muslim brothers. A Muslim is brother for another Muslim. We will have to make unity in ourselves else we must be oppressed day by day to non Muslim.They make unity strongly in themselves if We attack upon Christian or Jew. Why are We detached from the unity in our selves to be pure Muslim? Quickly make unity strongly against the Jew and the christian so, We must be victorious to fight with them by spiritual power. Our believing power is the strongest than the weapons of Jew and the Christian. I can say lastly to Muslim ummah” Quickly follow to Ahle sunnat wal jamawat If thy want to save your Humanity and Islam as a pure Muslim. Make a unity all Muslim all over the world to protest between Jew and Christian for their criminally activities: Allah said” A believer is brother for another believer. (Al Quran)Our have Islamic tradition and Islamic culture. We are devotees of Hajrat Omar Faruque bless be upon him and hajrat shere Quda Hajrat Ali (bless be upon them). Our heads are the strongest all over the country. Jew and Christian must be destructed in one day to the Muslim soldiers. We should make one unity for our selves else our after effect may be dangerous in future.

We will have to try making unity if we are divided to be different groups for the destroyed hell. Allah is only our creator. He has created everything for our safety and peace. It is the matter of Sorrow if We look Myanmar, Syria, Afghanistan, Kashmir and South Africa. Why are We victimized to the Jew and Christian communities. I think that we are fallen in wrong doing way. We must be oppressed to the disbelievers until Hajrat Imam Mahdi and Hajrat Isa( bless be upon them) come in this destructed world.. It is the matter of sorrow for the thinking our plan and future goal because we tyrannize upon our Muslim to be Muslim. Soudi Arabian Muslim and Pakistani Muslim are silent. Why are they silent ? They are selfish Muslim. I feel that They are Muslim naming on but They are very traitors as the naming of Islam and Muslim. Every person is known the matter that Jew and Christian are the strongest taking their weapons with powerful canon arms. I think that it is the false because Our believing spirit is the strongest than the weapons Jew and Christian. I submitted noticeable precedent that is given below:

Hajrat shah Jalal ( bless be upon him) had destroyed Hindu King Goura Govinda, Hajrat Khaja Mayinuddin Chisti (bless be upon him ) had humiliated of hindu king pritiraj for ever. We will have to believe the matter. It may be spiritual guide line for us to protest the Jew and the Christian. Quickly help barmise Ruhinga Muslim in boarder side even out side the boarder. They are Muslim If also they are alleged for different crimes. Make unity for ourselves as a Muslim all over the country to fight with scandalized Jew and Christian.

শুধু সীমান্ত খুলে দেওয়া নয় বরং বাংলাদেশ থেকে সেনাবাহিনী পাঠানো হোক মিয়ানমারে, নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াতে। বাংলাদেশ সরকার তাদেরকে সাহায্য করার মত যদি মন-মানষিকতা না থাকে, প্রয়োজনে আমরা নির্যাতিত রোহিঙ্গা মুসলিমদেরকে সাহায্য করব৷

যারা প্রকৃত মুসলমান তাঁরাই এ দাবীর সাথে ঐক্যমত পোষন করবে আর যারা মুনাফিক ওরা নিরাবতা পালন করবে৷ মুমিনদের জন্য মানবতা আছে কিন্তু মুনাফিকদের কোন মানবতা নেই বরং ওরা নিষ্ঠুর ও কাপুরুষ৷ আপনি কি এই দাবিকে সমর্থন করেন ?

Nurul Mujaddedi writer and Columnist in Bangladesh.

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৬৭৯ বার

Share Button

Callender

March 2024
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031