শিরোনামঃ-

» সিলেট উন্নয়ন ও ঐতিহ্যের স্মারক সংরক্ষণ পরিষদের পরামর্শ সভা

প্রকাশিত: ১৭. এপ্রিল. ২০১৯ | বুধবার

সিলেট জেলা হাসপাতালের নির্মাণ কাজ অবিলম্বে শুরুর দাবি

স্টাফ রিপোর্টারঃ সিলেটের বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংঠনের নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে সিলেট জেলা হাসপতালের নির্মাণকাজ শুরুর দাবি জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাতে সিলেট মহানগরীর কাজী ইলিয়াসে দৈনিক উত্তরপূর্ব কার্যালয়ে সিলেট উন্নয়ন ও ঐতিহ্যের স্মারক সংরক্ষণ পরিষদ আয়োজিত এক পরামর্শ সভায় তারা এ দাবি জানান।

নেতৃবৃন্দ আবুসিনা ছাত্রাবাসের মিলনায়তন ভবনটি ঐতিহ্যের স্মারক হিসেবে সংরক্ষণেরও দাবি জানান। সেই সাথে সিলেট উন্নয়ন ও ঐতিহ্যের স্মারক সংরক্ষণ পরিষদের সকল কর্মসূচিতে একাত্ম থাকার আশ্বাস দেন।

পরামর্শ সভায় সভাপতিত্ব করেন- সিলেট উন্নয়ন ও ঐতিহ্যের স্মারক সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক আল আজাদ।

সদস্য সচিব শামসুল আলম সেলিমের সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন-বিএমএর সভাপতি অধ্যাপক ডা রুকন উদ্দিন আহমদ, জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হোসেন আহমদ, সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের বিভাগীয় সভাপতি অ্যাডভোকেট সরওয়ার আহমদ চৌধুরী আবদাল, সিলেট জেলা প্রেসক্লাব সভাপতি তাপস দাশ পুরকায়স্থ, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সিলেট উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি স্বর্ণলতা রায়, বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতির মহানগর সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল জলিল, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক সুবল চন্দ্র দাস, বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির জেলা সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক পৃথ্বিশ কান্তি ঘোষ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সভাপতি নাজনীন হোসেন, রাজনীতি বিশ্লেষক রুহুল কুদ্দুস বাবুল, ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের বিভাগীয় সভাপতি মামুন হাসান, সাধারণ সম্পাদক শংকর দাস, জেলা প্রেসক্লাবের কার্যকরী সদস্য নূরুল ইসলাম, বিশ্বনাথ উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আমির আলী, দৈনিক উত্তরপূর্বর সহকারী বার্তা সম্পাদক ওলিউর রহমান, সাংবাদিক সজল ঘোষ, অমিত দাস শিবু, শাহনেওয়াজ তালুকদার, জিল্লুর রহমান জিলু, টুলটিকর ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য সুহিন আহমদ চৌধুরী, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক মোহাম্মদ শাহজাহান, যুগ্ম-আহ্বায়ক ফখরুল ইসলাম, সদর উপজলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য আব্দুল কাদির, আজাদুর রহমান সামাদ, অমর চৌধুরী, অপু চন্দ্র দেব, ফজলে আজিম চৌধুরী, জাকারিয়া হোসেন প্রমুখ।

পরামর্শ সভায় সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন- সিলেটের সাধারণ মানুষ আরো হাসপাতাল চান। তাই জেলা হাসপাতালের জন্যে নির্ধারিত জায়গায় জেলা হাসপাতাল হবেই। একই সাথে ঐতিহ্য যতটুকু রক্ষা করা প্রয়োজন ততটুকু ঠিকই রক্ষা করা হবে।

তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পর জেলা হাসপাতালের বিরোধিতাকে উন্নয়নের বিরুদ্ধে অবস্থান গ্রহণ বলে উল্লেখ করেন।

সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ বলেন- জেলা হাসপাতালের বাস্তবায়ন পর্যন্ত আসতে ৯ বছর সময় লেগেছে। আর পিছিয়ে যাবার সুযোগ নেই। তিনি অবিলম্বে সিডিউল অনুযায়ী জেলা হাসপাতালের নির্মাণ কাজ শুরুর দাবি জানিয়ে বলেন- না হলে সিলেটবাসী উন্নত চিকিৎসাসেবার এই সুযোগ থেকে বঞ্চিত হয়ে যাবেন। আশফাক আহমদ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড এ কে আব্দুল মোমেনকে দ্রুততম সময়ের মধ্যে জেলা হাসপাতালের নির্মাণ কাজ অনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করার আহ্বান জানান।

বিএমএর সভপতি অধ্যাপক ডা রুকন উদ্দিন আহমদ বলেন- জেলা হাসপাতাল যথাসময়ে বাস্তবায়িত হলে সিলেটে একটি ক্যান্সার হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করা হবে। তিনি উল্লেখ করেন, সিলেটে স্বাস্থ্যসেবা খাতে বর্তমান সরকারের আরো পরিকল্পনা রয়েছে।

জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হোসেন আহমদ জেলা হাসপাতালের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পর দীর্ঘ এক বছর পার হলেও কেউ এ ব্যাপার কোন কথা না বলে নির্মাণকাজ শুরুর পর বিরোধিতা করায় বিস্ময় প্রকাশ করেন। তিনি ঐতিহ্যের স্মারক সংরক্ষণের উপরও গুরুত্ব আরোপ করেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৪ বার

Share Button

Callender

April 2019
M T W T F S S
« Mar    
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930