শিরোনামঃ-

» বিএফএফ-সমকাল বিতর্ক উৎসবে চ্যাম্পিয়ন পাইলট

প্রকাশিত: ০৪. এপ্রিল. ২০১৯ | বৃহস্পতিবার

স্টাফ রিপোর্টারঃ দীর্ঘদিনের চেষ্টার ফলে একটি জাতি বিজ্ঞানমনষ্ক ও যুক্তিবাদী সমাজ গঠনের সফল হয়। আর একটি বিজ্ঞানমনষ্ক জাতিই পারে উন্নতির চরম শিখরে পৌঁছাতে। ধর্মান্ধতা, জঙ্গিবাদ মুক্ত সমাজ গঠনের জন্য যুক্তিবাদী হওয়ার পাশাপাশি বিজ্ঞানমনস্ক হতে হবে। কয়েক বছর ধরে বিজ্ঞান বিতর্ক উৎসব বিজ্ঞানমনষ্ক সমাজ গঠনে যে ভূমিকা রাখছে, তা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) বিএফএফ-সমকাল জাতীয় বিজ্ঞান বিতর্ক উৎসব-২০১৯ এর সিলেট জেলা পর্বের সমাপণী ও পুরষ্কার বিতরণীতে বক্তারা একথা বলেন।

বক্তারা বলেন, নতুন প্রজন্মকে বিজ্ঞানের পথে থাকতে হবে। কুসংস্কারমুক্ত আগামী প্রজন্ম গড়ে তুলতে পারলে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। সিলেট সরকারি অগ্রগামী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ মিলনায়তনে দিনভর সিলেট জেলা পর্যায়ের বিতর্ক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

অংশগ্রহণকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিতার্কিকদের উপস্থাপনায় বিতর্ক উৎসব প্রাণবন্ত হয়ে উঠে। যুক্তির লড়াই শেষে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে সিলেট সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়। ফাইনালে তারা জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজকে পরাজিত করে।

চ্যাম্পিয়ন সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের দলনেতা মো. মিনহাজ আহমেদ চৌধুরী ফাইনালের শ্রেষ্ঠ বক্তা হওয়ার গৌরব অর্জন করেন। এই দলের অপর ২ বিতার্কিক হলেন- মো. আবিদ হাসান ও মাহমুদুল আমীন সাকিব। অন্যদিকে রানার্সআপ জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের বিতার্কিক ছিলেন- তাপসী আনিকা ইসলাম, অন্বেষা দাশ শর্মি ও তাসতীফ ইসলাম সামী।

বিতর্ক উৎসবে বিচারক ছিলেন- বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সভাপতিম-লীর সদস্য মোকাদ্দেস বাবুল, শাহজালাল ইউনির্ভাসিটি ডিবেটিং সোসাইটির সাবেক সভাপতি জান্নাতুল তাজরীন ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক রাইতাহ্ বিন্তে আহ্সান।

যুক্তিতর্কের লড়াই শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- সিলেট মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার ফয়সল মাহমুদ।

সমকালের সিলেট ব্যুরো প্রধান চয়ন চৌধুরীর সভাপতিত্বে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন- সুহৃদ সমাবেশ সিলেট জেলা শাখার সভাপতি সুব্রত বসু। এই পর্বে অংশগ্রহণকালী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক মোহাম্মদ খলীলুর রহমান।

সুহৃদ সমাবেশের সাংগঠনিক সম্পাদক সজিব চৌধুরীর সঞ্চালনায় বক্তৃতা করেন- সমকাল সিলেট ব্যুরো স্টাফ রিপোর্টার মুকিত রহমানী ও ফয়সল আহমদ বাবলু।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিলেট মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার ফয়সল মাহমুদ বলেন- আজকে যারা বিতর্ক উৎসবে অংশ নিয়েছে, তাদেরকে চিরদিন যুক্তির সঙ্গেই থাকবে হবে। তিনি জীবনকে যুদ্ধের সঙ্গে তুলনা করে বলেন- সবাইকে যুদ্ধ চালিয়ে যেতে হবে। যুদ্ধ করতে হলে নিজের শরীরের যত্ন করতে হবে। লেখাপড়া থেকে শুরু করে জীবনের প্রতিটি পদে সাফল্য পেতে হলে নিজেকে ফিট রাখতে হবে। এজন্য শিক্ষার্থীদের নিয়মিত শরীরচর্চা করতে হবে। নিজেকে সুস্থ-সবল রাখতে পারলে জীবনের সকল ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন সম্ভব।

প্রধান অতিথি, বিচারক সহ অন্যান্যরা চ্যাম্পিয়ন, রানার্সআপ সহ অংশগ্রহণকারী দলের হাতে পুরষ্কার ও সনদপত্র তুলে দেন। সিলেট জেলা পর্বের বিতর্ক উৎসব আয়োজনে সর্বাত্মক সহযোগিতায় ছিলেন সমকালের ফটো সাংবাদিক ইউসুফ আলী, সুহৃদ সমাবেশের সিনিয়র সহ-সভাপতি সুজিত দাস, হেনা মম, সাধারণ সম্পাদক আসমা আক্তার মনি, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাবের হোসেন রানা, শহীদ আহমদ সাকিব প্রমুখ।

এবারে সিলেট জেলা পর্বের বিতর্ক উৎসবে অংশ নেওয়া স্কুলগুলো হলো- সিলেট সরকারি অগ্রগামী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ, দি এইডেড হাই স্কুল, বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ এবং কিশোরী মোহন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২২ বার

Share Button

Callender

April 2019
M T W T F S S
« Mar    
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930