শিরোনামঃ-

» লেখাপড়ার মানোন্নয়নে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আন্তরিক হতে হবে : ড. এ কে আবদুল মোমেন

প্রকাশিত: ৩০. মার্চ. ২০১৯ | শনিবার

স্টাফ রিপোর্টারঃ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেছেন, শিক্ষাক্ষেত্রে সিলেট অনেকটা পিছিয়ে পড়েছে। এ অবস্থা থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। শত প্রতিকূলতার মধ্য থেকেও প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০১৮ প্রতিযোগিতায় সিলেট সরকারি কিন্ডারগার্টেন প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়ভাবে যে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছে তা আমাদের জন্য গৌরবের।

সিলেটের শিক্ষার হার বাড়াতে হবে। সে লক্ষ্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামোগত উন্নয়ন সহ লেখাপড়ার মান উন্নয়নে সবাইকে গুরুত্ব প্রদান করতে হবে। তিনি বলেন, সিলেটের যেখানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নেই, সেখানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তৈরি করার দেওয়ার জন্য সরকার আন্তরিক। তবে কেউ যদি বিদ্যালয়ের জন্য একখন্ড জমি নিয়ে আসেন সেখানে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকার প্রতিষ্ঠা করে দেবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষাকে বিশেষ গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করেন। তাই যে কোন সময়ের চেয়ে এখন দেশের শিক্ষার চিত্র অনেক উন্নতি লাভ করেছে।

তিনি শনিবার (৩০ মার্চ) প্রাথমিক শিক্ষা পদক- ২০১৮ প্রতিযোগিতায় সিলেটের সরকারি কিন্ডারগার্টেন প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়ভাবে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করায় বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে মোটর শোভযাত্রা পূর্ব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথাগুলো বলেন। মোটর শোভাযাত্রা নিয়ে নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে টিলাগড় ইকোপার্ক এলাকায় গিয়ে এক আনন্দ অনুষ্ঠানে মিলিত হন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ও অভিভাবকবৃন্দ।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নাজনীন হোসেনের সভাপতিত্বে ও সহকারি শিক্ষিকা কুমকুম ইয়াসমিনের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সিলেট সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, সাবেক সাংসদ সৈয়দা জেবুন্নেছা হক, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় উপ-পরিচালক এ কে এম শাফায়েত আলম।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন- বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা নাসিমা আক্তার চৌধুরী।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো. আমিরুল ইসলাম, সহকারি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল মুন্তাকিম, উপজেলা শিক্ষা অফিসার নাহিদ পারভীন, অভিভাবক কমিটির সভাপতি মামুন হাসান, বিদ্যালয় কল্যাণ তহবিল সভাপতি আখতার ফারুক লিটন, ইউ আর সি ইন্সট্রাক্টর আনিসুল ইসলাম ভূইয়া, সহকারি উপজেলা শিক্ষা অফিসার রোমান মিয়া, লিপীকা রায়, সোহেল রানা, সহকারি শিক্ষক ছন্দা রানী দাস, মালেকা আক্তার জাহান, ফাহমিদা পারভীন, নিপা চৌধুরী, রোমানা বেগম, সুলতান আহমদ, প্যারা শিক্ষক শাম্মি ইয়াসমিন প্রমুখ।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩২ বার

Share Button

Callender

March 2019
M T W T F S S
« Feb   Apr »
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031