শিরোনামঃ-

» ইন্দিরা-মের্কেলের রেকর্ড অতিক্রম করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রকাশিত: ০৮. জানুয়ারি. ২০১৯ | মঙ্গলবার

সিলেট বাংলা নিউজ ডেস্কঃ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা চতুর্থবারের মতো বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হলেন।

সোমবার (৭ জানুয়ারি) বিকেলে বঙ্গভবনে চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন তিনি। এরই মাধ্যমে তিনি বাংলাদেশে পরপর ৩ বার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার নজির স্থাপন করলেন। আর বিশ্ব রাজনীতিতে তিনি স্পর্শ করলেন আয়রন লেডি হিসেবে ভারতের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধি এবং জার্মানির চ্যন্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেলের রেকর্ড। একইসঙ্গে অতিক্রম করেছেন মার্গারেট থেচারের রেকর্ড। এখন সবচেয়ে বেশি সময় ক্ষমতায় থাকা নারীদের এলিট ক্লাবে প্রবেশ করতে যাচ্ছেন ৭২ বছর বয়সী শেখ হাসিনা।

মার্গারেট থেচার ব্রিটেনের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী তো বটেই, বিংশ শতাব্দীতে অন্য কোনো ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী এতোদিন ডাউনিং স্ট্রিটের বাসিন্দা থাকেননি। কনজারভেটিভ পার্টি থেকে পর পর ৩ বার (১৯৭৯, ১৯৮৩ এবং ১৯৮৭) প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। ১৯৭৯ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত তিনি টানা ক্ষমতায় ছিলেন, যা ব্রিটেনের দেড়শ বছরের ইতিহাসে এক অনন্য মাইলফলক।

অন্যদিকে ৪ বার সরকার প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছেন মাত্র ২ জন নারী রাজনীতিক। তাদের একজন হলেন ভারতের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী কংগ্রেস নেত্রী ইন্দিরা গান্ধী। আর অপরজন হলেন জার্মানির বর্তমান চ্যন্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেল।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা প্রথমবারের মতো প্রধানমন্ত্রী হন ১৯৯৬ সালে সপ্তম সংসদ নির্বাচনে জয়ী হয়ে। এরপর ২০০৮ সালে ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নবম জাতীয় সংসদ, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দশম সংসদ এবং ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদের বিজয়ী হয়ে টানা ৩ বার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার গৌরব অর্জন করেন।

কংগ্রেস নেত্রী শ্রীমতি ইন্দিরা গান্ধী, তিনিই ভারতের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী। তিনি ১৯৬৬ সালে প্রথমবারের মতো ভারতের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। এরপর ১৯৭১ সালের সাধারণ নির্বাচনে বিপুল সংখ্যক আসনের বিজয়ী হয়ে ইন্দিরা গান্ধী দ্বিতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। একটানা ১৯৬৬ সাল থেকে ১৯৭৭ সাল পর্যন্ত ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ইন্দিরা গান্ধী।

এরপর ১৯৮০ সালে অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী হন শ্রীমতি গান্ধী। ১৯৮৪ সালের ৩১ অক্টোবর তিনি দেহরক্ষীর গুলিতে মৃত্যুবরণ করেন।

২০০৫ সাল থেকে জার্মানির চ্যন্সেলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন অ্যাঙ্গেলা ডোরোটেয়া মের্কেল। ২০০৯ এর ২৭ সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে তার দল সর্বাধিক সংখ্যক ভোট পেয়ে জয়ী হয় এবং সিএসইউ ও ফ্রি ডেমোক্রেটিক পার্টির সঙ্গে জোট সরকার গঠন করেন এবং ২০০৯ সালের ২৮ অক্টোবর তার সরকার শপথ গ্রহণ করে।

২০১০ সালের ১০ এপ্রিল মের্কেল দ্বিতীয়বারের মতো জার্মানির চ্যান্সেলর নির্বাচিত হন। এরপর ২০১৩ সাল এবং ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে টানা চতুর্থবারের মতো জার্মানির চ্যন্সেলর নির্বাচিত হন।

জার্মান রাজনীতির ইতিহাসে মের্কেল প্রথম কোনো নারী যিনি টানা চতুর্থ দফায় দেশটির চ্যান্সেলর হওয়ার সৌভাগ্য অর্জন করেছেন। ফলে তিনি ইউরোপের সবচেয়ে দীর্ঘকালীন শাসকে পরিণত হতে যাচ্ছেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৪ বার

Share Button

Callender

January 2019
M T W T F S S
« Dec   Feb »
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031