» সুনামগঞ্জ জেলায় নির্বাচনী হাওয়া; সরেজমিন প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৫. জুলাই. ২০১৭ | মঙ্গলবার

সুনামগঞ্জ বিশেষ প্রতিনিধিঃ আসন্ন জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষ্যে সুনামগঞ্জ জেলায় প্রার্থীদের সামগ্রীক কর্মকান্ড এবং ভোটারদের চাহিদা ও মতামত নিয়ে আমাদের বিশেষ প্রতিনিধির সরেজমিন প্রতিবেদন।

এবার যারা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন, তন্মধ্যে-

সুনামগঞ্জ-১:: ধর্মপাশা, তাহিরপুর ও জামালগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত এ আসনে প্রতিদ্বদ্ধিতা করছেন- (১) ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন (এমপি), (২) সৈয়দ রফিকুল হক (সাবেক এমপি), (৩) এডভোকেট আখতারুজ্জামান শেলী (সুনামগঞ্জের সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি), (৪) এডভোকেট রঞ্জিত সরকার (সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক), (৫) শামীমা শাহরিয়ার (কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেত্রী), (৬) কামরুল ইসলাম (বিএনপি), (৭) নজির হোসেন (সাবেক এমপি), (৮) ডা. রফিকুল ইসলাম প্রমূখ।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে– এই আসনে বর্তমানে ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন জনগণ থেকে প্রায় বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছেন। এলাকায় সৈয়দ রফিকুল হক’র বেশ ক্লিন ইমেজ রয়েছে এবং বিএনপি’র সাবেক এমপি নজির হোসেনের অত্যন্ত গ্রহণযোগ্যতা আছে।

সার্বজনীনভাবে বলতে গেলে এই আসনে আওয়ামীলীগের কোন একক প্রার্থীকে মনোয়ন দিলে বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সুনামগঞ্জ-২:: দিরাই ও শাল্লা উপজেলা নিয়ে গঠিত এ আসনে প্রতিদ্বদ্ধিতা করছেন- (১) ড. জয়া সেন গুপ্ত (এমপি), (২) এডভোকেট শামসুল ইসলাম (মহানগর আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক ও সিলেট ল’ কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক ভিপি) প্রমূখ।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে– এই আসনে এডভোকেট শামসুল ইসলাম অনেক আগে থেকেই জনগণের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন। সাংগঠনিক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন। তরুণ রাজনীতিবিদ ও কর্মী বান্ধব হিসেবে এলাকায় যথেষ্ট গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। তাঁর আপন ভাই সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক ছিলেন এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে তিনি শহীদ হন। জনগণ এই আসনে পরিবর্তন চেয়ে নতুন ও উদ্যমী নেতৃত্ব চায়। এলাকার জনগণ মনে করে ড. জয়া সেন গুপ্ত এমপি বয়োবৃদ্ধ ও রাজনৈতিক অঙ্গনে অপরিপক্ষ। স্বাভাবিক চলাফেরা করতে অক্ষম।

দলের স্বার্থে নেতৃত্বের পালাবদলে এই আসনে আওয়ামীলীগের একক প্রার্থীকে মনোনীত করলে বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সুনামগঞ্জ-৩:: জগন্নাথপুর ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত এ আসনে প্রতিদ্বদ্ধিতা করছেন- (১) এম এ মান্নান (অর্থ প্রতিমন্ত্রী), (২) আজিজুস সামাদ ডন (মরহুম আব্দুস সামাদ আজাদের পুত্র), (৩) সাজিদুর রহমান ফারুক (যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক), (৪) এডভোকেট মাওলানা শাহীনুর পাশা চৌধুরী (সাবেক এমপি) প্রমূখ।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে– এই আসনে বর্তমান অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এলাকায় জনবিচ্ছিন্ন রয়েছেন। তবে আওয়ামীলীগের কোন একক প্রার্থীকে মনোয়ন দিলে বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এই আসনে আওয়ামীলীগের কোন একক প্রার্থীকে মনোয়ন দিলে আওয়ামীলীগের বিজয় নিশ্চিত।

সুনামগঞ্জ-৪:: বিশম্বরপুর ও সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত এ আসনে প্রতিদ্বদ্ধিতা করছেন- (১) আলহাজ্ব মতিউর রহমান (সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি), (২) ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন (সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক), (৩) আয়ূব বখত জগলু (সুনামগঞ্জ পৌর মেয়র), (৪) পীর ফজলুর রহমান (জাপা এমপি) প্রমূখ।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে– এই আসনে জাপা’র এমপি পীর ফজলুর রহমান এর অবস্থান এলাকায় বেশ ভালো। আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থীদের অবস্থান ভালো।

এই আসনে আওয়ামীলীগের একক প্রার্থী প্রয়োজন।

সুনামগঞ্জ-৫:: দোয়ারা ও ছাতক উপজেলা নিয়ে গঠিত এ আসনে প্রতিদ্বদ্ধিতা করছেন- (১) মুহিবুর রহমান মানিক (এমপি), (২) শামীম আহমদ চৌধুরী (কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা), (৩) কলিম উদ্দিন মিলন (সাবেক এমপি), (৪) মিজানুর রহমান চৌধুরী (সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান) প্রমূখ।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে– এই আসনে মুহিবুর রহমান মানিক নির্দিষ্ট বলয়ে চলাফেরা করেন। আওয়ামীলীগের সার্বজনীন নেতা হতে পারেন নাই। এলাকার একটি বিশাল কর্মী গ্রুপ তাঁর বিরুদ্ধে অবস্থান করছে। তরুণ রাজনীতিবিদ হিসেবে ছাতক পৌর মেয়র আবুল কালামের ভাই শামীম আহমদ চৌধুরী নির্বাচনী প্রচারণায় রয়েছেন। বিএনপি’র সাবেক এমপি কলিম উদ্দিন মিলনের এলাকায় অনেক গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে।

এই আসনে আওয়ামীলীগের কোন একক প্রার্থীকে মনোয়ন দিলে বিজয় লাভ করা সম্ভব।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৯৭০৭ বার

Share Button

Callender

July 2017
M T W T F S S
« Jun   Aug »
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31